তাড়াশে ভূমিহীন মুক্তিযোদ্ধাদের সরকার প্রদত্ব ভূমি বেদখল

প্রকাশিত: ৩:০৩ অপরাহ্ণ, সেপ্টেম্বর ১৯, ২০২০
90 Views

মহসীন আলী,তাড়াশ প্রতিনিধি:
সিরাজগঞ্জের তাড়াশে ভূমিহীন মুক্তিযোদ্ধাদের সরকার প্রদত্ব ভূমি বেদখল দিয়েছে বলে উপজেলা নির্বাহী অফিসারের নিকট অভিযোগ করা হয়েছে। অভিযোগ সুত্রে জানা যায়, বারুহাস গ্রামের ভূমিহীন মুক্তিযোদ্ধা মরহুম গাজী আলী আশরাফ খানের স্ত্রী আলতাফুননেছা ও দিঘরীয়া গ্রামের গাজী সিদ্দিকুর রহমান ২১-৪-২০১৪ তারিখে ১৩৯৬ এবং ১৩৯৭ নং দলিল মুলে সরকার কর্তৃক প্রাপ্ত হয়ে ১৬-০৭-২০১৪ তারিখে খারিজ করে হালনাগাদ সরকারের রাজস্ব প্রদান করে। কিন্তু সরকারী বরাদ্দ অমান্য করে সড়াবাড়ী গ্রামের মৃত খন্দকার আবু বক্কারের ছেলে আরিফুল ইসলাম ও তার দুই ভাই খন্দকার আলাল উদ্দিন ও খন্দকার দুলাল উদ্দিন জোড় করে বেদখল দেওয়ায় নিরুপায় হয়ে ৭-৭-২০২০ তারিখে উপজেলা নির্বাহী অফিসারের নিকট আবেদন দাখিল করলে তিনি সহকারী কমিশনার (ভূমি)কে প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা গ্রহনের জন্য আদেশ দেন।তিনি ১৩-০৭-২০ তারিখে বাদী-বিবাদীকে প্রয়োজনীয় কাগজ পত্রাদি সহ ঘটনা স্থলে থাকার জন্য নোটিশ প্রদান করায় বিবাদী সময়ের জন্য আবেদন করলে ২৮-৭-২০তারিখে পুনরায় দিন ধার্য করে উভয় পক্ষকে চাষাবাদ করতে নিষেদ করা হয়। তিনি ধার্যকৃত তারিখে তদন্ত না করলে আমরা তদন্তের জন্য বার বার তার কার্যারয়ে ধরণা ধরে কাকুতি মিনতি করার পর ও ৬-০৯-২০ তারিখে মুক্তিযোদ্ধা সন্তান কমান্ডের সভাপতি –সাধারণ সম্পাদকের অনুরোধে ০৭-০৯-২০ তারিখে তিনি তদন্ত না করে কানুনগো ও বস্তুল তহশিল দ্বারকে তদন্তে পাঠান।তদন্ত কালে কানুনগো ও তহশীলদ্বার উভয় পক্ষকে কাগজ পত্র দৃষ্টে বিবাদীকে নালিশী ভূমিতে চাষাবাদ করতে নিষেধ করেন। বিবাদীগন সহকারী কমিশনার ভূমি ও তদন্ত কমিটির নিষেধ অমান্য করে ৮-৯-২০তারিখে দখলে যায়। আইনকে অমান্য করায় আমরা ৯-৯-২০তারিখে উক্ত জমি দেখতে গেলে বিবাদীগন আমাদের নামে তাড়াশ থানায় মিথ্যা অভিযোগ করলে থানা কর্তৃক ১১-০৯-২০ তারিখে তদন্ত হয়। বর্তমানে সরকারের বরাদ্দকৃত জমি দলিল মুলে ও সরকারী রাজস্ব দিয়েও ভোগ করতে না পারায় কর্তৃপক্ষের সহযোগীতা কামনা করছেন ভূমিহীন মুক্তিযোদ্ধার পরিজন বর্গ।
এ বিষয়ে সহকারী কমিশনার (ভূমি) ওবায়দুল্লাহ’র সাথে মোবাইল ফোনে যোগাযোগ করার চেষ্টা করা হয়েছে। বার বার ফোন করা হলেও তিনি ফোন রিসিভ করেন নাই।