নারী নির্যাতন ও ধর্ষণের প্রতিবাদে নকলায় মানববন্ধন

প্রকাশিত: ৯:২৩ অপরাহ্ণ, অক্টোবর ৬, ২০২০
182 Views

মো. মোশারফ হোসাইন, শেরপুর প্রতিনিধি:

সারাদেশে ধর্ষণ ও নারী নির্যাতনের প্রতিবাদে শেরপুর জেলার নকলা উপজেলায় সর্বস্তরের শিক্ষার্থীদের ব্যানারে বিভিন্ন দাবী সম্বলিত ফেস্টুন ও প্লেকার্ড হাতে নিয়ে ঘন্টাব্যাপী এক মানববন্ধন কর্মসূচি পালন করেছে শিক্ষার্থীরা। মঙ্গলবার (৬ অক্টোবর) ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের বাংলা বিভাগের শিক্ষার্থী হাসিবুল হাসান হাসিব ও জগন্নাথ বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষার্থী শাকিল আহমেদের উদ্যোগে উপজেলা মুক্তিযোদ্ধা কমপ্লেক্সের সামনে ঢাকা-শেরপুর মহাসড়কে এ মানববন্ধন অনুষ্ঠিত হয়।

ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের শেরপুর জেলা ছাত্র সংসদের দপ্তর সম্পাদক হাসিবুল হাসান হাসিব’র সভাপতিত্বে এ মানববন্ধনে প্রধান অতিথি হিসেবে বক্তব্য রাখেন ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় ছাত্রলীগ শাখার সমাজসেবা বিষয়ক সম্পাদক ওয়ালীউল্লাহ রাসু ও প্রধান বক্তা হিসেবে বক্তব্য রাখেন ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় ছাত্রলীগ শাখার উপ-ক্রীড়া সম্পাদক এ.বি.এম মঈনুল হাছান। এ কর্মসূচিতে অন্যান্যদেরে মধ্যে বক্তব্য রাখেন- জগন্নাথ বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষার্থী শাকিল আহমেদ ও শ্যামল, শেরপুর সরকারি কলেজের জাহিদ হাসান ও আব্দুর রহিম প্রমুখ।

বক্তারা নোয়াখালীর বেগমগঞ্জের নারী নির্যাচন, সিলেটের এমসি কলেজে গণধর্ষণ ও খাগড়াছড়িতে প্রতিবন্ধী তরুণীকে ধর্ষণসহ সারাদেশে ঘটে যাওয়া ধর্ষণ ও নারী নির্যাতনের দ্রুত বিচার ও রায় কার্যকর করার দাবি জানান। বক্তারা তাদের বক্তব্যে অবেগময় কন্ঠে জাতির কাছে প্রশ্ন রেখে বলেন- ‘কাঁদছে নারী-কাঁদছে দেশ, মানব সভ্যতার কোন জায়গায় দাঁড়িয়ে আজ বাংলাদেশ? চারদিকে শুধু ভয়, আতঙ্ক, কান্না আর নারীদের সমভ্রম রক্ষার আকুতি। এমন ঘটনা কোন ক্রমেই মেনে নিতে পারছেন না শিক্ষার্থীরা। তারা জানান, দেশে গড়ে প্রতিদিন ৩ জনেরও বেশি নারী ধর্ষিত হচ্ছেন। এই পরিস্থিতি থেকে মুক্তি পেতে সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে কালো চিহ্ন ধারণ করে প্রতিবাদ ও ধীক্কার জানানো শুরু করেছেন সর্বস্তরের শিক্ষার্থীরা।

ঘন্টাব্যপী এ মানববন্ধন কর্মসূচিতে বিভিন্ন স্কুল, কলেজ, মাদ্রাসা ও বিশ্ব বিদ্যালয়ে পড়ুয়া সাধারণ ছাত্র-ছাত্রী ও নেতৃবৃন্দ, উপজেলা ছাত্রলীগের বিভিন্ন স্তরের নেতা-কর্মী, উপজেলার বিভিন্ন এলাকায় শিক্ষার্থী কর্তৃক পরিচালিত সামাজিক সংগঠনের মধ্যে বিডি কিন নকলা, ব্লাড ব্যাংক অব নকলা, রক্ত সৈনিক নকলা শাখা, রক্তের ফোটায় মানবতা, নকলা প্রবীণ ও প্রতিবন্ধী হিতৈষী সংস্থা, নকলা অসহায় সহায়তা সংস্থাসহ উপজেলার অন্যান্য সেচ্ছাসেবী সংগঠননের নেতৃবৃন্দ, সুশীল সমাজের নেতৃবৃন্দ ও সাধারণ লোকজনসহ এলাকার গণ্যমান্য ব্যক্তিবর্গ শিক্ষার্থীদের সাথে একাত্বতা ঘোষনা করে এ মানববন্ধনে অংশ নেয়।