আশুলিয়ায় অনুমোদনহীন বহুতল ভবন নির্মাণ

প্রকাশিত: ২:২৫ অপরাহ্ণ, ফেব্রুয়ারি ১০, ২০২১
আশুলিয়া প্রতিনিধি :  ঢাকার আশুলিয়ার কুরগাঁও বটতলা এলাকায় বিল্ডিং কোড না মেনে এবং রাজউক এর থেকে অনুমোদন ছাড়াই বহুতল ভবন নির্মান করছেন স্থানীয় মোঃ মিলন মিয়া (৫০)। শুধু তাই নয়, এই ভবন নির্মান করতে গিয়ে তিনি তার প্রতিবেশী হাজী হেলালউদ্দিন নুর করিম (৫৫) এর বসতবাড়ির সীমানার কিছু অংশ জবরদখল করে ভবন নির্মান করছেন বলে আশুলিয়া থানায় লিখিত অভিযোগ হয়েছে।
লিখিত অভিযোগে বাদী জানান, মোঃ মিলন মিয়া বসতবাড়ির সীমানার কিছু অংশ জবরদখল করে তার বিল্ডিংয়ের সিঁড়ি নির্মান কাজ করতে থাকে। এমতবস্থায় নুর করিম ও তার স্ত্রী নাসিমা বেগম বিবাদীকে মৌখিকভাবে প্রতিবাদ করলে উক্ত বিবাদী অজ্ঞাতনামা আরও দুই তিনজন সহ গত ৩১ জানুয়ারি, ২০২১ তারিখ আনুমানিক বেলা দেড়টায় তাদেরকে অকথ্য ভাষায় গালিগালাজ করে এবং এক পর্যায়ে তাদের দুইজনকে আক্রমন করে এলোপাথারি কিলঘুষি মেরে উভয়ের শরীরে নীলাফুলা জখম করে। যাবার সময় প্রাণে মেরে ফেলার হুমকি প্রদান করে।
সরেজমিন ঘটনাস্থলে গিয়ে দেখা যায়, মিলন মিয়া তার ভবন নির্মান করছেন নুর করিমের জায়গা ঘেষেই। এসময় বিষয়টি জানতে  মুঠোফোনে মিলন মিয়াকে কল করলে তিনি কথা না বলে তার স্ত্রীকে দিয়ে কল রিসিভ করান। এসময় তিনি নুর করিমের অভিযোগ অস্বীকার করে বলেন, তার স্বামী তার নিজের জায়গায় বাড়ি করছেন। পাশাপাশি তিনি আরও অভিযোগ করেন যে, নুর করিমের ছেলে উল্টা তার স্বামীকে মেরে জখম করেছে।
এদিকে, মিলন মিয়ার বহুতল ভবনটি যে পপুলার ডিজাইন এন্ড কনসাল্টিং এর স্বত্বাধিকারী রফিকুজ্জামান সালাম জানান, মিলন মিয়ার ভবনটি ৫ম তলা পর্যন্ত ডিজাইনসহ রাজউকের প্ল্যান পাস এরকাজটি তার ফার্ম করছে। তবে মিলন মিয়ার গড়িমসির কারণে এখনও পর্যন্ত অনুমোদনের জন্য প্রতিবেদনই জমা দেওয়া হয়নি।
কোনো ভবন সংশ্লিষ্ট কর্তৃপক্ষের অনুমোদন ছাড়া নির্মাণ করা অবৈধ বলেও জানান তিনি।
এব্যাপারে, আশুলিয়া থানায় লিখিত অভিযোগের তদন্ত কর্মকর্তা আশুলিয়া থানার উপ-পরিদর্শক ইকবাল মুঠোফোনে জানান, লিখিত অভিযোগের প্রেক্ষিতে উভয়পক্ষকে সমঝোতার মাধ্যমে বিষয়টির মিমাংসা করার ব্যাপারে বলে হয়েছে। তবে যদি মিমাংসা না হয় তবে পরবর্তীতে আইনানুগ ব্যবস্থা নেয়া হবে।