বাউফলে প্রকৌশলীর বাড়িতে ডাকাতি

প্রকাশিত: ১০:৩৫ অপরাহ্ণ, ফেব্রুয়ারি ১৫, ২০২১
0Shares

পটুয়াখালী প্রতিনিধি :
পটুয়াখালীর বাউফলে মশিউর রহমান সোহেল নামের এক প্রকৌশলীর বাড়িতে অভিনব কায়দায় ডাকাতি করে স্বর্ণালংকারসহ প্রায় ২০ লাখ টাকার মালামাল লুট করে নিয়ে যায়। রবিবার গভীর রাতে উপজেলার কেশবপুর ইউনিয়নের কেশবপুর গ্রামে এঘটনাটি ঘটেছে। ওই প্রকৌশলী বর্তমানে ঢাকায় মোনায়েম গ্রæপ নামের একটি প্রতিষ্ঠানে কর্মরত আছেন। এবিষয়ে এখনো থানায় কোন অভিযোগ দায়ের হয়নি। প্রকৌশলী মশিউর রহমান জানান, তার স্ত্রী উপজেলার সূর্যমনি ইউনিয়নের স্বানেশ্বর মহিলা মাদ্রাসার শিক্ষক শাহনাজ বেগম চিকিৎসার জন্য কয়েকদিন আগে ঢাকায় যান। ঢাকা থাকাকালিন সময়ে ঘর দেখাশুনার জন্য তার বড় ভাই শাহ আলম মুন্সিকে ঘরে রেখে যান। ১৪ ফেব্রæয়ারি রবিবার রাত আনুমানিক আড়াইটার দিকে ১৫ থেকে ২০ জনের মুখোশধারী একদল ডাকাত ঘরের দরজা ভেঙ্গে ভিতরে ঢুকে শাহ আলম মুন্সির হাত-পা এবং মুখ বেঁধে ফেলে। এরপর ডাকাতদল আলমিরা ভেঙ্গে ২০ ভরি স্বর্ণালংকার, নগদ ৫৬ হাজার টাকা, দুইটি ল্যাপটপ,সকল ধরণের ক্রোকারিজ সামগ্রী এবং বিদেশী কম্বলসহ ফ্রিজে থাকা মাছ-মাংস লুট করে নিয়ে যায়। গতকাল সোমবার সকালে ঘরের দরজা খোলা দেখে পাশের বাড়ির লোকজন শাহ আলম মুন্সিকে হাত-পা ও মুখ বাঁধা অবস্থায় উদ্ধার করে। বিষয়টি বাউফল থানাকে অবহিত করা হয়েছে বলে প্রকৌশলী মশিউর জানান। তিনি আরো বলেন, তার মেয়ে এ্যাডভোকেট সাবরিনা রহমান আজ মঙ্গলবার ঢাকা থেকে বাড়ি এসে থানায় লিখিত অভিযোগ দায়ের করবেন।
বাউফল থানার অফিসার ইনচার্জ (ওসি) মোস্তাফিজুর রহমান জানান, এবিষয়ে আমাকে কিছুই জানানো হয়নি। আমি খোঁজ নিচ্ছি।