‘সরকারের পতন ছাড়া দেশে শা‌ন্তি ফিরবে না’

প্রকাশিত: ৩:০৬ অপরাহ্ণ, নভেম্বর ২১, ২০১৯
0Shares

বিএনপি চেয়ারপারসনের উপদেষ্টা বীর মুক্তিযোদ্ধা আব্দুস সালাম বলেছেন, ‘দে‌শের মানুষ শা‌ন্তি‌তে নেই। দে‌শে শা‌ন্তি ফি‌রি‌য়ে আন‌তে হ‌লে কঠিন আন্দোলনের মধ্য দিয়ে এই সরকা‌রের পতন দরকার। এই সরকা‌রের পতন না হ‌লে দে‌শে শা‌ন্তিও ফিরবে না।’

তি‌নি ব‌লেন, ‘দেশে দ্রব্যমূল্যের ঊর্ধ্বগতি অব্যাহত রেখে জনগণকে বিপদে ফেলেছে সরকার। আর সিন্ডিকেট করে সব চুরি করেছে। এই সরকার পেঁয়াজ, লবণ, তেল, ভোট ও গণতন্ত্র চোর। তাই এই চোর সরকারের হাত থেকে দেশকে বাঁচাতে হলে বেগম খালেদা জিয়াকে মুক্ত করা ও তারেক রহমানকে দেশে ফিরিয়ে আনা ছাড়া আর কোনও বিকল্প নেই।’

বৃহস্প‌তিবার (২১ ন‌ভেম্বর) জাতীয় প্রেসক্লা‌বের সাম‌নে জাতীয়তাবাদী জনতা দল এর উদ্যোগে দেশনেত্রী বেগম খালেদা জিয়াসহ সকল রাজবন্দিদের নিঃশর্ত মুক্তির দাবিতে আয়োজিত মানববন্ধনে তি‌নি এসব কথা ব‌লেন।

আব্দুস সালাম বলেন, ‘প্রবাদ আছে, একটি মিথ্যা কথা ঢাকতে হাজারটা মিথ্যা কথা বলতে হয়। বর্তমান অবৈধ সরকার বিনা ভোটে নির্বাচিত, কিন্তু তারা সকাল থেকে সন্ধ্যা পর্যন্ত এক কথাই বলে- ‘নির্বাচন সুষ্ঠু হয়েছে’। এই মিথ্যা কথাটা ঢাকার জন্য হাজারও লক্ষ-কোটি মিথ্যা বলছে তারা। আল্লাহ তা’আলা কি মিথ্যাবাদীদের তাদের সহায় হতে পারেন? পারেন না।’

আজ একটি ‘অশান্তি সরকার’ ক্ষমতায় আছে উল্লেখ করে তিনি বলেন, ‘দেশের মানুষের কোনও শান্তি নাই। রাস্তাঘাটে চলাফেরা করতে শান্তি নাই। দ্রব্যমূল্য কেনাকাটায় শান্তি নাই। শান্তি মত ঘুমানোরও উপায় নাই।’

তিনি বলেন, ‘দেশে তেল, পেঁয়াজ, লবণ সবকিছুর দাম বেড়েছে। এটা শুধু বিএনপি বা খালেদা জিয়ার সমস্যা না, এটা সারা দেশের জনগণের সমস্যা। এই সমস্যার সমাধান করতে হলে দেশের জনগণকে এগিয়ে আসতে হবে। শুধুমাত্র একটি দল কিংবা একক চেষ্টায় এই সমস্যার সমাধান হবে না।’

তিনি আরও বলেন, ‘এই সরকার বেগম খালেদা জিয়াকে কারাগারে আটক করে রেখেছে। সরকার জানে, দেশনেত্রী জেলের বাহিরে থাকলে জনগণের পাশে দাঁড়াবেন। আন্দোলন করে জনগণের অধিকার ফিরিয়ে আনবেন। তার জন্য তাঁকে কারাগারে আটক করে রাখা হয়েছে।’

এ সময় সাধারণ জনগণের উদ্দেশ্যে তিনি বলেন, ‘আপনারা অনেকেই বলেন বিএনপি আন্দোলন করে না কেন। আমিও মনে করি বিএনপির আন্দোলন করা উচিত। যদি বিএনপি আন্দোলন করে তাহলে সেই আন্দোলনে আপনাদেরও পাশে থাকতে হবে। তবেই আন্দোলন সফল হবে।’

আওয়ামী লীগের উদ্দেশ্যে তিনি বলেন, ‘অনেক জ্বালাইছেন। এই সরকারের আমলে ফেলানীর মতো অনেককেই ভারত গুলি করে মেরেছে। অনেক কৃষককে মেরে ভারতে নিয়ে গেছে। এর কোনও কিছুরই বিচার পাইনি। বিচার চাওয়ার সাহসও পাননি।’

আব্দুস সালাম বলেন, ‘দেয়ালে পিঠ ঠেকে গেছে। তাই এখন আর ঘরে বসে থাকার সময় নাই। বিএনপি আন্দোলনে কর্মসূচি ঘোষণা করবে। বিএনপির আন্দোলনের সাথে দেশের জনগণকে রাস্তায় নামতে হবে। রাজপথে নেমে এই সরকারকে উৎখাত করতে হবে।’

সরকারের উদ্দেশ্যে তিনি আরও বলেন, ‘১২ বছর ধরে ক্ষমতায় আছেন। ক্ষমতায় থেকে লুটপাট করে সব টাকা বিদেশে পাঠিয়েছেন। এবং দেশের জনগণকে ভিখারিতে পরিণত করেছেন। শুধু তাই নয়, দেশে দ্রব্যমূল্যের ঊর্ধ্বগতি অব্যাহগত রেখে দেশের জনগণকে বিপদে ফেলেছেন।’

সংগঠনের সভাপতি মো. শহীদুল ইসলাম তালুকদারের সভাপ‌তি‌ত্বে ও  সাধারণ সম্পাদক মো. রায়হানুল ইসলাম রাজুর সঞ্চালনায় মানববন্ধনে আরও উপস্থিত ছিলেন- বিএনপি চেয়ারপারসনের উপদেষ্টা হাবিবুর রহমান হাবিব, নির্বাহী কমিটির সদস্য অধ্যক্ষ আলমগীর হোসেন, মৎস্যজীবী দলের যুগ্ম আহ্বায়ক অধ্যক্ষ সেলিম মিয়া, ঢাকা মহানগর দক্ষিণ বিএনপির সহ-সভাপতি ফরিদ উদ্দিন, কৃষক দলের আহ্বায়ক কমিটির সদস্য লায়ন মিয়া মোহাম্মদ আনোয়ার, কে এম রকিবুল ইসলাম রিপন, চালক দলের সভাপতি জসিমউদ্দিন কবির ও মুক্তার আকন্দ প্রমুখ।