মোংলায় পৌরসভার পর এখন ইউনিয়ন পর্যায় কঠোর বিধি নিষেধ

প্রকাশিত: ৬:১৪ অপরাহ্ণ, জুন ২৩, ২০২১
0Shares

শিকদার শরিফুল ইসলাম, মোংলা (বাগেরহাট) প্রতিনিধিঃ
ভয়াবহ পরিস্থিতির দিকে ধাবিত হচ্ছে মোংলা বন্দর এলাকায় করোনা সংক্রমণের পরিস্থিতি। এক দিকে চলছে কঠোর বিধি নিষেধ তার মধ্যেও মানুষের মাঝে আসছে না স্বাস্থ্য সচেতনতা। পৌর এলাকা ছাড়া ইউনিয়ন পর্যায়ও কঠোর নিধি নিষেধের আওতায় আনতে যাচ্ছে উপজেলা প্রশাসন, চলছে প্রচার প্রচারনা।

মঙ্গলবার সন্ধ্যা পর্যন্ত করোনা উপসর্গ নিয়ে ৫৯ জন নমুনা পরীক্ষায় ৩৩ জনের রিপোর্ট এসেছে পজেটিভ। এর মধ্যে গত ৪৮ ঘন্টায় মঙ্গলবার দুইজন ও বুধবার দুইজন করেনা উপসর্গ নিয়ে মারা গেছে। এর আগে গত শনিবার ৪২ জনের মধ্যে ৩১ জন ও শুক্রবার ২২ জনের মধ্যে ১৬ জন সনাক্ত হয়েছেন। সপ্তাহে মঙ্গল ও বৃহস্পতিবার দুই দিন করোনা ভাইরাস পরিক্ষা এবং পর্যাপ্ত পরিমান না হওয়ায় ক্ষোভ সাধারন মানুষের মাঝে।

করোনা আক্রান্ত ও করোনা উপসর্গ নিয়ে মৃত্যুসহ সংক্রমণ বাড়লেও কেন যেন সচেতনতা বাড়ছে না সাধারণ মানুষের মাঝে। চেকপোষ্টে পুলিশ পাহাড়ার মধ্যেও পৌর শহরের প্রধান কাঁচা, মুদি ও মাছ-মাংসের দোকানের অধিকাংশ লোকজনকে দেখা গেছে মাস্ক বিহীন, ঘা-ঘেষা ভাবে চলাচল করতে।

ভারতীয় ভেরিয়েন্ট’র কোন লক্ষন এই মুহুর্তে আমাদের কাছে নাই। তবে করোনা সংক্রোমনের হার কি কারনে বৃদ্ধি হয়েছে তা ক্ষতিয়ে দেখছে স্বাস্থ্য বিভাগ।
তবে সাধারন মানুষের মধ্যে সচেতনতা বা নাগরিক দায়ীত্ব না আসলে সংক্রামন রোধ করা কঠিন, করোনা মহামারী প্রতিরোধ করা সকলের উদ্ধোগ দরকার। প্রশাসনের একার পক্ষে প্রতিরোধ করা সম্ভব নয়, সকলের প্রচেষ্টাই করোনার হাত থেকে রক্ষা করতে হবে মোংলার মানুষকে বলে জানায় উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা কমলেশ মজুমদার।