নান্দাইল-দেওয়ানগঞ্জ সড়কের বেহাল দশা জনদুর্ভোগ সীমাহীন

প্রকাশিত: ১:৩১ অপরাহ্ণ, আগস্ট ১৮, ২০২১

আমিনুল হক বুলবুল নান্দাইল (ময়মনসিংহ) :

ময়মনসিংহের নান্দাইল-দেওয়ানগঞ্জ পাকা সড়ক দীর্ঘদিন ধরে যান চলাচলের অযোগ্য হয়ে পড়েছে। ফলে এ রাস্তা দিয়ে প্রতিদিন হাজারো যাত্রীবাহী পরিবহন ও মালবাহী পরিবহনে যাতায়াতে চরম দুর্ভোগ পোহাতে হচ্ছে। রাস্তাটির বিভিন্ন জায়গা দেবে গিয়ে ও কার্পেটিং উঠে গিয়ে ছোট-বড় অগণিত খানাখন্দে বেহাল দশায় পরিণত হয়েছে। ফলে রাস্তাটি চলাচলের অনুপযোগী হয়ে পড়েছে।সকাল থেকে রাত অবধি ওইসব গর্তের উপর দিয়ে অটোরিকশা, ইজিবাইক, মালবাহী গাড়ি কিংবা যাত্রীবাহী হাজরো যানবাহন চলাচল করছে প্রতিদিন।যানবাহন উল্টে গিয়ে রাস্তায় দুর্ঘটনার মতো ঘটনাও ঘটছে প্রতিদিন।

সরেজমিন গিয়ে দেখা যায়, ১৭কি.মি. সড়কের বিভিন্ন স্থানে পিচ, ইট-পাথর ওঠে গিয়ে খানাখন্দ আর ছোট-বড় গর্ত এবং এসব গর্তে পানি জমে বেহাল দশায় পরিণত হয়েছে সড়কটি। বর্তমানে রাস্তার বিভিন্ন স্থানে বড় বড় গর্তের মধ্যে পানি জমে মনে হয় যেন পুকুরে পরিণত হয়েছে। সড়কটিতে কোথাও কোথাও দুই-তিন ফুট গর্তের সৃষ্টি হয়েছে।জরুরি কোন মুমূর্ষু বা প্রসূতি রোগীদের উপজেলা সদর হাসপাতালে নিতে সীমাহীন দুর্ভোগের শিকার হতে হয়। তবে উক্ত রাস্তার কিছু গর্তে রাবিশ বা ইটের টুকরা ফেলে চলাচলের উপযোগী করে তুললেও ২/৩ দিনেই ফের একই অবস্থা সৃষ্টি হচ্ছে।

ভুক্তভোগী সিএনজি চালক আ: সাত্তার, অটোরিকশা চালক কামরুল,রবিসহ অনেকই জানান, বর্তমানে এ সড়ক দিয়ে যানবাহন যাওয়াত তো দূরের কথা হেঁটে যাওয়াও দুষ্কর হয়ে পড়েছে। চরম দুর্ভোগ পোহাতে হচ্ছে সব শ্রেণি-পেশার মানুষকে।নান্দাইল যাওয়ার বিকল্প রাস্তা চামটা- শেরপুর ইউপি সড়ক দিয়ে যেতে হচ্ছে তাদের।

এ বিষয়ে ব্যবসায়ী ও স্থানীয়রা বলেন, রাস্তা সংস্কারে বছর না ঘুরতেই বেহাল অবস্থায় জনগণের চলাচলের যে ভোগান্তির সৃষ্টি হয়েছে তা একমাত্র ভুক্তভোগীরাই জানেন। এমতাবস্থায় স্থানীয় এলাকাবাসী,যাত্রীসাধারণ ও গাড়ীর চালক রাস্তাটি দ্রুত সংস্কার করার জন্য সংশ্লিষ্ট কর্তৃপক্ষের জরুরি হস্তক্ষেপ কামনা করেছেন।

নান্দাইল উপজেলা প্রকৌশলী আল আমিন সরকার বলেন,রাস্তাটি স্থায়ীভাবে পুনঃসংস্কারের জন্য দরপত্র আহব্বান করা হয়েছে। কাজের আদেশ প্রক্রিয়াধীন রয়েছে। দরপত্র পাশ হলেই রাস্তাটি সংস্কার করা হবে।