জমিজমা নিয়ে বিরোধকে কেন্দ্র করে ঘর ভাংচুর,বৌ-শাশুরীকে পিটিয়ে জখম

প্রকাশিত: ১২:১৫ পূর্বাহ্ণ, জানুয়ারি ১৫, ২০২২
38 Views

জমিজমা নিয়ে বিরোধকে কেন্দ্র করে ঘর ভাংচুর,বৌ-শাশুরীকে পিটিয়ে জখম

পটুয়াখালী প্রতিনিধি:
টুয়াখালীতে জমিজমা নিয়ে বিরোধকে কেন্দ্র করে মরিয়ম বেগম(৩৫) ও নুরজাহা বেগম (৫৫) নামে বৌ-শাশুরীকে পিটিয়ে জখম করা হয়েছে। ভেঙ্গে ফেলা হয়েছে নব-নির্মিত বসত ঘর।  শুক্রবার সকালে সদর উপজেলার লাউকাঠি ইউনিয়নের জামুরা গ্রামে এঘটনাটি ঘটেছে। এ ঘটনায় পটুয়াখালী সদর থানায় অভিযোগ দায়ের করা হয়েছে। অভিযোগ সুত্রে জানাগেছে, জামুরা গ্রামের বশার হাওলাদারে গংদের সাথে একই বাড়ির শাহআলম হাওলাদার গংদের ৫ বছর ধরে  জমিজমা নিয়ে বিরোধ চলে আসছিল। বশার হাওলাদার তার ভোগদখলীয় জমিতে একটি টিনসেট ঘর নির্মান করেন। ঘটনার দিন শুক্রবার সকালে  শাহ আলম হাওলাদার গং তার লোকজন নিয়ে জোরপূর্বক নব-নির্মিত বসত ঘরে ঢুকে ঘরের দরজা,জনালাও বেরা কুপিয়ে ভাংচুর করে। এসময় বশার হাওলাদার এর স্ত্রী মরিয়ম বেগম ও মা নুরজাহা বেগম (৫৫) বাধা দেয়। উভয়ের মধ্যে কথাকাটির এক পর্যায় শাহ আলম হাওলাদার (৪৮),রফিক হাওলাদার (৪৫) শাহাদাত হোসেন(২৪)ইলিয়াস হোসেন (২৩) সহ ১০/১২ জন সন্ত্রাসী নিয়ে মরিয়ম বেগম(৩৫) কে পিটিয়ে জখম করে। ছেলের বৌকে উদ্ধারের জন্য এগিয়ে এলে শাশুরী নুরজাহান বেগমসহ দুজনকে এলোপাথারী ভাবে পিটিয়ে গায়ের কাপুড় টানা হেচড়া করিয়া বিবস্ত্র করে ফেলে। এসময় ওই সন্ত্রাসীরা বশার হাওলাদার নব নির্মিত বসত ঘরের বেড়া কুপিয়ে ভাংচুর করে চলে যায়। পরে বাড়ির অন্যান্য লোকজন দুজনকে উদ্ধার করে পটুয়াখালী ২৫০ শয্যা বিশিষ্ট হাসপাতালে ভর্তি করে। এঘটনায় বশার হাওলাদার  স্ত্রী মরিয়ম বেগম বাদী হয়ে অজ্ঞাতনামাসহ ১২ জনকে আসামী করে পটুয়াখালী সদর থানায় মামলা দায়ের করেন।
এ বিষয় পটুয়াখালী সদর থানা অফিসার ইনচার্জ ওসি মনিরুজ্জামান বলেন, এঘটনায় আজ সন্ধ্যায় অভিযোগ পেয়েছি। ঘটনা স্থলে পুলিশ পাঠানো হয়েছে। তদন্ত সাপেক্ষে আইনানুগ ব্যবস্থা গ্রহন করা হবে।