কালকিনিতে মিথ্যা সংবাদ প্রচার ও মিথ্যা মামলা দিয়ে হয়রানির অভিযোগ

প্রকাশিত: ৩:১৭ অপরাহ্ণ, সেপ্টেম্বর ১৪, ২০২২
1243 Views

কালকিনিতে মিথ্যা সংবাদ প্রচার ও মিথ্যা মামলা দিয়ে হয়রানির অভিযোগ

বি.এম.হা‌নিফ,কাল‌কি‌নি প্র‌তি‌নি‌ধিঃ

মাদারীপুরের কালকিনি উপজেলার কালাই সরদারের চর গ্রামের হাওলাদার ও বেপারী বংশের মধ্যে আদিকাল থেকেই বংশগত বিরোধ চলে আসছি‌লো। সমাজে যে কোনো প্রকার সালিশ, যে কোনো অনুষ্ঠান আয়োজন করা হয় তাও বংশগত ভাবেই করা হয়। তাঁর ই ধারাবাহিকতায় গত ১৫ই জুন ২০২২ইং তারিখে অনুষ্ঠিত ইউনিয়ন পরিষদ নির্বাচনে হাওলাদার ও বেপারী বংশের মধ্যে দু-জন প্রার্থী করা হয়। এতে হাওলাদার ও বেপারী বংশের মধ্যে খুবই উত্তেজনা বৃদ্ধি পায়।

নির্বাচনের সময় উভয় পক্ষের মধ্যে এমন উত্তেজনা ছিলো যে প্রতিটি মুহূর্তে সংঘাতে জরানোর আশংকা ছিলো।

নির্বাচনে হাওলাদার বংশের সমর্থক দুলাল সরদার ৪১৮ ভোট পেয়ে বিজয়ী হয়।

অপরদিকে বেপারী বংশের প্রার্থী আব্দুল্লাহ বেপারী ৪০৫ ভোট পেয়ে মাত্রা ১৩ ভোটের ব্যবধানে পরাজিত হয়।

এতে দুই বংশের মধ্যে উত্তেজনা আরো ঘনিভূত হয়।

গত ১৩ আগস্ট সমিতির হাট অটো স্টান্ডে হাওলাদার বংশের জসিম হাওলাদার,আঃ রহিম হাওলাদার অপর দিকে বেপারী বংশের মধ্যে মোরশেদ বেপারী,শাহ্ আলম বেপারী এর মধ্যে কথার তর্কে জড়িয়ে গেলে হাতা হাতির এক পর্যায়ে সংঘাতে রুপ নিলে বেপারী বংশের চাঁর জন মাথায় ও শরীরের বিভিন্ন যায়গায় আঘাত প্রাপ্ত হন।

এতে শা্হ আলম বেপারী গুরুতর হলে প্রথমে কালকিনি থানা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে পরে ঢাকায় উন্নত চিকিৎসার জন্য নিয়ে যাওয়া হয়।

বর্তমানে তিনি চিকিৎসাধীন রয়েছেন।

সংবাদ পেয়ে তাৎক্ষণিক কালকিনি থানা পুলিশ এসে পরিস্থিতি শান্ত করে।

কালকিনি থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা উভয় পক্ষের মধ্যে আর যাতে কোনো অপ্রীতিকর ঘটনা না ঘটি এজন্য উভয় পক্ষ কে সতর্ক করেন।

যেহেতু সমিতির হাট বাজারে ঘটনা ঘটেছে তাই সমিতির হাট বাজার পরিচালনা কমিটি উভয় পক্ষের (হাওলাদার ও বেপারী) বংশের সাথে আলোচনা করে এক জায়গায় বসে সমস্যা আর যাতে না বাড়ে এমন প্রস্তাব দিলে উভয় পক্ষ এক যায়গায় বশার আগ্রহ প্রকাশ করে।

গত ০২ সেপ্টেম্বর ২০২২ইং শুক্রবার সকাল নয়টার সময় সমিতির হাট বাজার পরিচালনা কমিটি ও হাওলাদার এবং বেপারী বংশের ৫+৫ জন মুরুব্বী‌দের কে নিয়ে আলোচনায় বসা হয়।

উপস্থিত সকলের সামনেই উভয় পক্ষের মুরুব্বীগণ ওয়াদা করেন তারা আর কোনো প্রকার সংঘাতে জড়াবে না।

মিটিং শেষে সবাই যখন চলে যাচ্ছে তখন কে বা কাহারা যেন কি বল্লো তখনি শুরু হয়ে গেলো আবার সংঘর্ষ।

এতে দু` গ্রুপের অনেকেই আহত হয়ে কালকিনি উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্স, বরিশাল শের-ই-বাংলা মেডিকেল কলেজ হাসপাতাল, ঢাকা পঙ্গু হাসপাতাল সহ বিভিন্ন হসপিটাল চিকিৎসা দেয়া হচ্ছে ।

এতে সমিতির হাট বাজার পরিচালনা কমিটির কোনো প্রকার ত্রুটি ছিলো না। বাজার কমিটি এলাকার শান্তি ও বাজারের শৃঙ্খলা ফিরিয়ে আনার জন্যই বাজার কমিটি এ উদ্যোগ নিয়েছিলেন।

এখন সমিতির হাট বাজার পরিচালনা কমিটির সভাপতি জনাব মঈনুল ইসলাম কে ষড়যন্ত্রকারীরা নানা ভাবে উক্ত ঘটনার সাথে জড়ানোর পায়তারা চালিয়ে যাচ্ছে।

মঈনুল ইসলাম একজন আওয়ামী পরিবারের সন্তান তার বাবা জনাব আখফত আলী সরদার একজন (অবঃ) সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক,তার বড় ভাই পূর্ব এনায়েতনগর ইউনিয়ন আওয়ামী লীগ নেতা,তার ছোট ভাই নুরুজ্জামান সরদার যুক্তরাষ্ট্র আওয়ামী সেচ্ছাসেবক লীগের সভাপতি।

তার পরিবারের সকলেই যুক্তরাষ্ট্র প্রবাসী।

এলাকা বাসীর অভিযোগ ০২-০৯-২০২২ইং সকালের সংঘর্ষের পরে থানা পুলিশ এসে পরিস্থিতি স্বাভাবিক করলেও দুপুরের পূর্বে পুলিশ ঘটনাস্থল ত্যাগ করেন এলাকায় আবার উত্তেজনা বিরাজ করে এবং জুমার নামাজের পরে পুনরায় আবার সংঘর্ষ হলে বেপারী বংশের ৬জন ও হাওলাদার বংশের ২জন আহত হয়।

কিন্তু ০২ তারিখে যদি পুলিশি টহল থাকতো তাহলে পুনঃরায় আবার সংঘর্ষের ঘটনা ঘটতো না।

কালকিনি থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা বলেন` যারা আইন নিজের তুলে নিয়ে সংঘর্ষে লিপ্ত হয়েছে তাদের কে আাইনের আওতায় আনা হবে।