জুন মাসের মধ্যে বাংলাদেশে করোনা সংক্রমণের হার নিচের দিকে নেমে যাবে: ত্রাণ প্রতিমন্ত্রী

প্রকাশিত: ৩:১১ অপরাহ্ণ, মে ১৩, ২০২০
0Shares

নিজস্ব প্রতিবেদক:  ঢাকার আশুলিয়ায় দূস্থদের মাঝে ত্রাণ বিতরণের সময় দুর্যোগ ব্যবস্থাপনা ও ত্রাণ প্রতিমন্ত্রী ডা. এনামুর রহমান বলেছেন, বাংলাদেশে করোনার সংক্রমণ এবং মৃত্যুর সংখ্যা অনেক কম। বিভিন্ন গবেষণা প্রতিষ্ঠান থেকে বলা হয়েছে জুন মাসের মধ্যে বাংলাদেশে করোনা সংক্রমণের হার নিচের দিকে নেমে যাবে। তাই আমরা আশা করছি আগামী ৩০ জুনের মধ্যেই বাংলাদেশে সবকিছু স্বাভাবিক হয়ে যাবে।

বুধবার দুপুরে ঢাকার আশুলিয়া ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক আমজাদ হোসেন সরকারের বাড়িতে নিজস্ব অর্থায়নে  প্রায় ৫ শতাধিক অসহায় মানুষের মাঝে ত্রাণ বিতরণ অনুষ্ঠানের উদ্বোধন শেষে সাংবাদিকদের সাথে আলাপকালে তিনি এসব কথা বলেন।

ত্রাণ প্রতিমন্ত্রী বলেন, বাংলাদেশে এর আগে কখন এতবড় দুর্যোগ সৃষ্টি হয়নি। বৈশ্বিক এই মহামারীতে অনেক ধনী এবং শক্তিশালী দেশও করোনা মোকাবিলা করতে গিয়ে হিমশিম খাচ্ছে এবং তারা বিপর্যস্ত। সেই তুলনায় প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার নেতৃত্বে বাংলাদেশ এখনও ভালো অবস্থানে রয়েছে। আমাদের সংক্রমণ এবং মৃত্যুর সংখ্যা অনেক কম। এই সংকটকালেও ত্রাণ বিতরণেও বাংলাদেশ বিশ্বের কাছে প্রশংসিত হয়েছে। প্রতিটি ক্ষুধার্ত মানুষ ত্রাণ পেয়েছে।

ত্রাণ নিয়ে দুর্নীতির বিষয়ে জানতে চাইলে প্রতিমন্ত্রী এনামুর রহমান বলেন, বাংলাদেশের ত্রাণ নিয়ে চরম দুর্নিতির বিষয়টি সত্য নয়। দেশে প্রায় ৬৫ হাজার জনপ্রতিনিধির মধ্যে গতকাল মঙ্গলবার (১২ এপ্রিল) পর্যন্ত মাত্র ৫৫ জন ব্যক্তি ত্রাণ নিয়ে দুর্নীতির দায়ে অভিযুক্ত হয়েছে। আমি মনে করি ৬৫ হাজার জনপ্রতিনিধির মধ্যে ৫৫ জন্য অত্যন্ত নগণ্য। যদিও এ রকম একটি ঘটনাও কাম্য নয়, এই সংকটকালে যার যা কিছু আছে তা নিয়ে ক্ষুধার্ত মানুষের পাশে দাঁড়ানো উচিত।

তিনি বলেন, অভিযুক্ত ৫৫ জনের বিরুদ্ধে মামলা হয়েছে এবং গ্রেপ্তারও হয়েছে। স্থানীয় সরকার মন্ত্রণালয় থেকে জনপ্রতিনিধিদেরকে বরখাস্ত করা হয়েছে। একজন ইউএনওকেও তার কর্মস্থল থেকে সরিয়ে দিয়ে বিভাগীয় শাস্তির ব্যবস্থা করা হয়েছে।

আমরা আশা করি আগামী দিনে আর কেউ ত্রাণ নিয়ে দুর্নীতি করার সাহস পাবে না। আমাদের কাছে পর্যাপ্ত অর্থ এবং খাদ্য মজুদ আছে। করেনা সংকট যতদিন চলবে ততদিন আমরা ক্ষুধার্ত মানুষের পাশে দাঁড়িয়ে ত্রাণ সহায়তা দিতে পারবো।

ত্রাণ বিতরণ অনুষ্ঠানে এ সময় আরও উপস্থিত ছিলেন আশুলিয়া থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা শেখ রিজাউল হক,  আশুলিয়া ইউনিয়ন আওয়ামীলীগের সভাপতি মো. হেলাল মাদবর( সাবেক চেয়ারম্যান-আশুলিয়া ইউপি) প্রমুখ।