মাদারীপু‌রের ডাসা‌রে মুক্তিযোদ্ধা পরিবারের উপর হামলায় আহত-২ বাড়ী ঘড় ভাংচুর

প্রকাশিত: ৩:২৭ অপরাহ্ণ, মে ৩০, ২০২০
0Shares

মাদারীপু‌রের ডাসা‌রে মুক্তিযোদ্ধা পরিবারের উপর হামলায় আহত-২ বাড়ী ঘড় ভাংচুর

কাল‌কি‌নি (মাদারীপুর) প্রতিনিধি ,

মাদারীপুরের কালকিনি উপজেলার ডাসার থানার বালিগ্রাম ইউনিয়নের বীর মুক্তিযোদ্ধা মোক্তার হোসেন মুন্সির পরিবারের উপর হামলা ভাংচুরের অভিযোগ পাওয়া‌গে‌ছে

এতে ২জন আহত হয়ে হাসপাতালে ভর্তি আছেন এবং শুক্রবার রাতে থানায় মামলা দিতে গিয়ে মামলা দিতে চাইলেও মামলা নিচ্ছে না ডাসার থানা পুলিশ এমন অভিযোগ ভুক্তভুগি পরিবারের মুক্তিযোদ্ধা পরিবার ও স্থানীয় সুত্রে যানাযায়, ডেসায় আজিমপুর জোনে চাকরি রত মিজান মাতুব্বর করোনার কারনে ছুটিতে এসে বাড়িতে অবস্থান করছিলেন,

বৃহস্পতিবার বিকালে মুক্তিযোদ্ধা মোক্তার হোসেন মুন্সির খরিদ কৃত সম্পত্তি জোর করে দখল করে নিচ্ছে শুনে মুক্তিযোদ্ধা মোক্তার হোসেন মুন্সি জমিতে গিয়ে বাধা প্রদান করি এতে ক্ষিপ্ত হয়ে মোকছেদ মুন্সির ছেলে মিজান মুন্সি দল বল নিয়ে মুক্তিযোদ্ধা মোক্তার হোসেন মুন্সিকে আটকে রেখে জমি দখল নিয়ে বেড়া দিতে চেষ্টা করে এ সময় স্থানিয় গন্যমান্য ব্যাক্তিরা তাদের বলেন আমরা বসে এটার মিমাংসা করে দিবো! এতে মুক্তিযোদ্ধাকে ছাড়িয়ে নিয়ে যারযার বাড়ী চলে যান সবাই।

পরক্ষনে হঠাৎ ক‌রে মিজান মাতুব্বরের নেতৃত্বে দেশি অস্ত্র সস্ত্র রামদা,ছেন,টেডা,সহ দলবল নিয়ে আমার ও আমার ভাইয়েদের ৫টি বাড়ি ঘড় কুপিয়ে ঝাঝড়া করেদেয়। গাছের কাঠাল কেটে মাটিতে ফেলে দেয় ও কবুতরের খোপ কুপিয়ে তছনছ করে কবুতর গুলি ধরে নিয়ে যায়। এ সময় মোফাজ্জেল মুন্সি ও আছমা বেগম বাধা দিলে,মিজান মাতুব্বর রামদা দিয়ে তাদের মাথায় কুপিয়ে ফেলে রেখে যায় এবং হুমকি দেয় ওই জমিতে আর জাবিনা ও মামলা করতে গেলে জানে মেরে ফেলবো।

তাদের ডাক চিৎকারে মানুষ জন এসে উদ্ধার করে মাদারীপুর সদর হাসপাতালে ভর্তি করেন এতে মোফাজ্জেল মুন্সির মাথায় ৬টি ও আছমা বেগমের মাথায় ৫টি সেলাই করে চিকিৎসা দেওয়া হচ্ছে। এলাকার গন্যমান্য ব্যাক্তি ও শালিশ ব্য‌ক্তিরা বলেন আমরা উভয়কেই মিমাংসায় রাজি করিয়েছি কিন্তু মিজান মাতুব্বর লোকজন নিয়ে হঠাৎ মুক্তিযোদ্ধার বাড়ী ঘড়ে হামলা কে ভাংচুর করে এবং ২জনকে আহত করে।

স্থানীয় আমিন মুন্সি বলেন, এরা বার বার এলাকার মানুষের উপর অন্যায় অত্যাচার করে টাকার জোরে পাড়পেয়ে যায় থানায় অনেকবার মামলা করতে গিয়ে আমর মামলা নেয়নি। অভিযুক্ত মিজান মাতুব্বর এ ব্যাপারে কোন কথা বলতে রাজি হননি মুক্তিযোদ্ধা মোক্তার হোসেন মুন্সি বলেন, আমি এ ব্যাপারে ডাসার থানায় মামলা করতে গেলে থানা থেকে আমার মামলা নেয়নি। এমন কি অভিযোগ পর্যন্ত নেয়নি।

পরক্ষনে আমি মাদারীপুর পুলিশ সুপারের কাছে মোবাইল করে আমি এক জন মুক্তিযোদ্ধা পরিচয় দিয়ে কথা বলি, ওরা আমাদের উপর বার বার হামলা করে,মারধোর করে,বিগত দিনেও আমার ও আমার পরিবারের উপর হামলা করে মারধর করে যখম করে এবং মানুষ ধরে আপোষ মিমাংসা করে,আমার অসহায়ত্বের কথা বলার প‌রে থানায় মামলা নেওয়া হয়। ডাসার থানা অফিসার ইনর্চাজ মোঃ আঃ ওহাব মোবাইলে জানান,মামলা হ‌য়ে‌ছে তদন্ত সা‌পে‌ক্ষে আইন আনুগ ব্যবস্থা নেওয়া হ‌বে।