ইমামকে জুতার মালা পরালেন আ. লীগ নেতা!

প্রকাশিত: ৪:৫০ অপরাহ্ণ, জুন ৪, ২০২০
0Shares

ইউনিয়ন পরিষদে ডেকে নিয়ে মসজিদের একজন বৃদ্ধ ইমামের দুই হাত বাঁধা হয়েছে পিছমোড়া করে। তারপর গলায় জুতার মালা পরিয়ে ঘোরানো হয়েছে প্রকাশ্যে। পাশে হাসি ঠাট্টা করছেন ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যানসহ স্থানীয় আওয়ামী লীগের নেতারা। কেউ কেউ ছবি তুলছেন, ভিডিও করছেন। গতকাল রাতে এমন একটি ভিডিও ছড়িয়ে পড়েছে সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে। ঘটনাটি ঘটেছে বরিশালের মেহেন্দিগঞ্জ উপজেলার দড়িরচর এলাকায়।

খোঁজ নিয়ে জানা যায়, লাঞ্ছনার শিকার শহিদুল ইসলাম ওরফে আলাউদ্দিন হুজুর স্থানীয় শিকদার বাড়ি জামে মসজিদে ইমামতির পাশাপাশি খাজুরিয়া দাখিল মাদরাসার কেরানি হিসেবে চাকরি করেন। তার বিরুদ্ধে অভিযোগ, উপবৃত্তির ৪ হাজার ৮০০ টাকা আত্মসাত করেছেন তিনি। এই অভিযোগে ইউপি চেয়ারম্যান মোস্তফা রাঢ়ি ইমামকে ডেকে নিয়ে এমন ঘটনা ঘটান। মোস্তফা রাঢ়ি স্থানীয় সাংসদ পংকজ দেবনাথের অনুসারী বলে জানা গেছে।

তবে আত্মসাতের অভিযোগ অস্বীকার করে ইমাম শহিদুল ইসলাম বলেন, উপবৃত্তির জন্য ছাত্রীদের নম্বর দিতে হয়। কিন্তু এক ছাত্রীকে ডেকে পাঠানোর পরও না আসায় সেখানে আমার নম্বর বসিয়ে দিই। টাকা আসার পর তাকে দিয়ে দেব, এমনটা ভেবেছিলাম। কিন্তু ওই টাকা বুঝিয়ে দেওয়ার আগেই তারা আমাকে ডেকে নিয়ে লাঞ্ছিত করে। আমার সামনেই আমার ছেলেকে পিটিয়ে আহত করে।

সূত্র:news paper 24