মোংলায় সুন্দরবনে বিষ দিয়ে মাছ ধরার প্রতিবাদ করায় হামলা

প্রকাশিত: ৫:০২ অপরাহ্ণ, জুন ৮, ২০২০
0Shares

শরিফুল ইসলাম, বাগেরহাট প্রতিনিধি:
সুন্দরবনে বিষ প্রয়োগে মাছ ধরার প্রতিবাদ করায় মোংলার বৈদ্যমারি বাজারে ৭ জুন রবিবার সন্ধ্যায় হামলায় আহত হয়েছেন দক্ষিণ হলদিবুনিয়া গ্রামের মৎস্য ব্যবসায়ী গণি বেপারী (৬৩) এবং তার মেয়ে রহিমা বেগম (২৬)। আহতদের উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ভর্তি করা হয়েছে। এঘটনায় ৬জনকে বিবাদী করে মোংলা থানায় অভিযোগ দেয়া হয়েছে।

থানায় দেয়া লিখিত অভিযোগের মাধ্যমে জানা যায় রবিবার সন্ধ্যা ৬টায় বৈদ্যমারি বাজারে নাছিমা বেগমের দোকানের সামনে মৎস্য ব্যবসায়ী গণি বেপারী অপর মৎস্য ব্যবসায়ী মোঃ নজরুল বেপারী জেলেদেও দিয়ে কেন সুন্দরবনে বিষ প্রয়োগে মাছ ধরে এই নিয়ে কথা কাটাকাটি হয়। কথা কাটাকাটির এক পর্যায়ে মোঃ নজরুল বেপারী, মোঃ শহিদ বেপারী. মহিদ বেপারী, জাহিদ বেপারী, রহিম বেপারী সর্ব সাং-বৈদ্যমারি আগলাদিয়া এবং মিলন বেপারী পিতা মোঃ নজরুল বেপারীসহ অজ্ঞাতনামা ৪/৫জন কেন বিষ প্রয়োগের কথা বললো সেকারনে মৎস্য ব্যবসায়ী গণি বেপারী এবং তার মেয়ে রহিমা বেগমের উপর হামলা চালায়। লোহার রড এবং লাঠিসোটার বেধড়ক মারপিটে আহত গণি বেপারী এবং তার মেয়ে রহিমা বেগমকে মুমুর্ষ অবস্থায় উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ভর্তি হয়েছেন।

আহতদের সম্পর্কে জানতে চাইলে উপজেলা স্বাস্থ্য ও পরিবার পরিকল্পনা কর্মকর্তা ডাঃ জীবিতেষ বিশ্বাস বলেন বৈদ্যমারি বাজারের সংঘর্ষে আহতরা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ভর্তি হয়েছেন তাদের চিকিৎসা দেয়া হয়েছে।

এব্যাপারে বিবাদী মোঃ নজরুল বেপারীর সাথে মুঠোফোনে যোগাযোগ করে তার বক্তব্য পাওয়া যায়নি। হামলার বিষয়ে জানতে চাইলে থানা অফিসার ইনচার্জ মোঃ ইকবাল বাহার চৌধুরী বলেন গণি বেপারীর লিখিত অভিযোগ পাওয়া গেছে। তদন্ত সাপেক্ষে আইনগত ব্যবস্থা নেয়া হবে।