চাকরি না পেয়ে ইংরেজিতে মাস্টার্স করা যুবকের আত্মহত্যা

প্রকাশিত: ৩:২০ অপরাহ্ণ, জুন ১৯, ২০২০
0Shares

অনলাইন ডেক্স: পাবনার সাঁথিয়ায় এনামুল হক সুইট (৩৫) নামে এক যুবক গলায় ফাঁস দিয়ে আত্মহত্যা করেছেন। শুক্রবার (১৮ জুন) সকালে উপজেলার বামনডাঙ্গা গ্রামের নিজ বাড়ি থেকে তার মরদেহ উদ্ধার করে পুলিশ।

নিহত সুইট সাঁথিয়া উপজেলার আতাইকুলা থানার আর-আতাইকুলা ইউনিয়নের বামনডাঙ্গা গ্রামের অবসরপ্রাপ্ত সেনা সদস্য আতাহার আলী ওরফে আতাহার মিলিটারির ছেলে। তিনি সরকারি এডওয়ার্ড কলেজ থেকে ইংরেজিতে মাস্টার্স সম্পন্ন করার পরও চাকরি না পাওয়ায় হতাশায় ভুগছিলেন বলে পারিবারিক সূত্রে জানা গেছে।

নিহতের মামা বাশার মোল্লা জানান, সুইট ইংরেজিতে মাস্টার্স সম্পন্ন করেছে। তারা দুই ভাই ও এক বোন। বড় ভাই রতন দেশের বাইরে থাকে। বোন বিবাহিত আর সুইটের স্ত্রী ঢাকায় চাকরি করে। সে বাবা-মায়ের সঙ্গে বাড়িতে থাকত। তার মা বছর দুয়েক আগে ব্রেন স্ট্রোক করে শয্যাশায়ী।

সুইটের আত্মীয়রা জানান, সুইট দীর্ঘদিনেও কোনো চাকরি পাননি। মাঝে কিছুদিন একটি কিন্ডারগার্টেনেও চাকরি করেন। সরকারি বা বেসরকারি ভালো চাকরি না পাওয়ায় তিনি হতাশাগ্রস্ত ও মানসিক অস্থিরতায় ছিলেন।

সুইটের বাবা আতাহার আলী বলেন, রাতে খাবার খেয়ে সুইট নিজ ঘরে ঘুমাতে যায়। গভীর রাতে পরিবারের লোকজন জানালা দিয়ে দেখতে পায় সুইট দরজা আটকানো ঘরে গলায় ফাঁস দিয়েছে। সকালে পুলিশ এসে রুমের দরজা ভেঙে তার মরদেহ উদ্ধার করে।

আতাইকুলা থানা পুলিশের উপপরিদর্শক (এসআই) সুভাস কুমার জানান, শুক্রবার সকাল ৭টায় পুলিশ ফোর্সসহ ঘটনাস্থলে গিয়ে তিনি ওই যুবকের মরদেহ উদ্ধার করেন।

আতাইকুলা থানা পুলিশের ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) নাসিরুল আলম জানান, এ ঘটনায় নিহতের পরিবারের লোকজনের পক্ষ থেকে কোনো অভিযোগ করা হয়নি।

সূত্র: jago bangla