সাভারে মন্ত্রী এনামকে অশ্লীল গালিগালাজের অডিও ফাঁস

প্রকাশিত: ১২:০৭ অপরাহ্ণ, জুন ২০, ২০২০
0Shares

সাভারে মন্ত্রী এনামকে অশ্লীল গালিগালাজের অডিও ফাঁস

অনলাইন ডেক্স: সাভারে দুর্যোগ ব্যবস্থাপনা ও ত্রাণ প্রতিমন্ত্রীকে নিয়ে অকথ্য ভাষায় গালিগালাজসহ সরকার বিরোধী বিভ্রান্তিকর মন্তব্য করা রাজু আহমেদ নামে কথিত এক যুবলীগ নেতার অডিও রেকর্ড ফাঁস হয়েছে। এঘটনায় স্থানীয় আওয়ামী লীগ ও এর অঙ্গসংগঠনের নেতাকর্মীরা তীব্র প্রতিবাদ জানিয়ে অভিযুক্তকে গ্রেফতারের দাবি জানিয়েছেন।

জানা গেছে, অভিযুক্ত আশুলিয়ার বাসিন্দা রাজু আহমেদ নিজেকে যুবলীগ নেতা পরিচয় দিয়ে থাকেন। এছাড়া রাজু গ্রুপ নামে তিনি একটি প্রতিষ্ঠানের চেয়ারম্যান বলেও চাওড় রয়েছে।

সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে ফাঁস হওয়া অডিও রেকর্ড থেকে জানা যায়, রাজু আহমেদ নামে নিজেকে যুবলীগ নেতা পরিচয়দানকারী ওই ব্যক্তি স্বপ্রণোদিত হয়ে দুর্যোগ ব্যবস্থাপনা ও ত্রাণ প্রতিমন্ত্রী স্থানীয় সংসদ সদস্য ডা. এনামুর রহমানকে নানা বিষয়ে অকথ্য ভাষায় গালিগালাজ করছেন। কখনও ব্যক্তিগত আবার কখনও রাজনৈতিক বিষয়ে নিয়ে সরকার বিরোধী বিভ্রান্তিকর মন্তব্য করছেন তিনি।

অডিও রেকর্ডটি হুবহু তুলে ধরা হলো-
‘আজিজ (বর্তমান সেনাপ্রধান) সাহেব আমার দাদা শ^শুড়ের ক্লোজ বন্ধু, ক্লাসমেট, দোস্তর দোস্ত, বন্ধুর বন্ধু। সেনাপ্রধান, প্রাইম মিনিষ্টার, রাষ্ট্রপতির সাথে আমাদের সম্পর্ক আছে। আমাদের সম্পর্ক নাই, বাংলাদেশে এমন কেউ নাই।’

আশুলিয়ায় নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেটের উপর হামলার বিষয়ে এই প্রতারক বলেন, ‘মন্ত্রী এনাম সাহেবরে আমি লিখছি- ভাই আপনিতো বললেন এটা খুব খারাপ কাজ হইছে, বেআইনি কাজ হইছে। আপনাদের তাদের নিয়ে টান দেন কেন? উনি টান দেয়, সাহাবুদ্দিন (আশুলিয়া ইউপি চেয়ারম্যান) ধরে রাখে। এই বাইনচোদ এনাম! এই কথাটা একটু বলতে চাইছিলাম- আমি রাজু, আমার কিন্তু এমপি, চেয়ারম্যান, উপজেলা চেয়ারম্যান হওয়ার দরকার নাই। আমি রাজু, আশুলিয়ার একটাই। আর কোন রাজু তৈরি হয় নাই, অনেক আগে থেকেই। আমাকে সাভার-আশুলিয়ার মানুষ আমাকে চেনে। যত সিআইডি, রিকশাওয়ালা, মুচি সবাই চেনে।’

‘এনামের নির্বাচন-টির্বাচন করে দিলাম। আমার এলাকায় ভোটমোট পাইলাম। সিলমিল সহ মাইরা দিলাম সত্য কথা। আশুলিয়া কেন্দ্র আমি দেখছি। এই খানকির পোলায় ৪-৫ মাস আগে আমার ছোট ভাইয়ের বিয়া গেছে, দু:খের কথা ভাই। আমি এনামের বাসায় গিয়া বইসা রইছি দাওয়াত দেওয়ার জন্য। স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী, আমি, উ..(এনাম) একসাথে বসছি। কামাল (বর্তমান স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী) ভাই কিন্তু আমার আত্মীয়। কামাল ভাই, আমার দাদার বন্ধুর ছেলে। যাই হোক ভাই দ্যাহেন- উ..(এনাম) করল কি গাড়ীর সামনে বইসা, আমাগো কি প্যারাডো গাড়ি নাই মাদারচোদ। প্যারাডো গাড়িতে আমরা চলি না? গাড়ির মধ্যে বইসা আমারে এনাম কয়- আপনি কে? আমি বললাম যে রাজু ভাই। আমার বাসা আশুলিয়া।’

এছাড়া এই রাজুর বিরুদ্ধে আশুলিয়া ইউনিয়নের বিভিন্ন গ্রামে বাড়িতে বাড়িতে অবৈধ গ্যাস সংযোগ দিয়ে কোটি কোটি টাকা হাতিয়ে নেওয়ার অভিযোগ রয়েছে। শুধু তাই নয় সে গত কয়েক মাস আগে ফেসবুকে একটি স্টাটাস দেন বর্তমান আওয়ামী লীগ সরকার ব্যর্থ সরকার এই সরকারের পদত্যাগ করা উচিত। এছাড়া পরিবেশ দূষণের অভিযোগে পরিবেশ অধিদপ্তর সাভার ও আশুলিয়ায় অবৈধ ইটভাটা বন্ধ করে দিলে তিনি আমিনবাজার এলাকায় সরকারের বিরুদ্ধে একটি মানববন্ধনে অংশ গ্রহন করে বর্তমান সরকারের পদত্যাগ দাবি করেন। এখন কথা হচ্ছে সে কিভাবে যুবলীগ করলো। এই রাজু গুপ্তচর বলে এলাকাবাসী জানিয়েছেন।

এবিষয়ে স্থানীয় সংসদ সদস্য ও দুযোগ ব্যবস্থাপনা ও ত্রাণ প্রতিমন্ত্রী ডা.এনামুর রহমান বলেন কথিত এই রাজুর বিরুদ্ধে আইন শৃঙ্খলা বাহিনীকে ব্যবস্থা নেওয়ার নির্দেশ দেওয়া হয়েছে। ও তার বিরুদ্ধে কঠোর ব্যবস্থা এবিষয়ে সাভার উপজেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক ও উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান মঞ্জুরুল আলম রাজীব বলেন এই অবৈধ গ্যাস সংযোগকারীর বিরুদ্ধে কঠোর ব্যবস্থা নেওয়া হবে।

এবিষয়ে সাভার উপজেলা ইউনিয়ন পরিষদ চেয়ারম্যান এসোসিয়শনের সভাপতি পারভেজ দেওয়ান ও সাধারণ সম্পাদক মোহাম্মদ ফখরুল আলম সমর বলেন কথিত এই যুবলীগ নেতার বিরুদ্ধে সাভার উপজেলার ১২ টি ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যানরা মামলা দায়ের করবে।

এই রাজুর বাড়ি আশুলিয়ার চাঁনগাও এলাকায় সে অবৈধ গ্যাস সংযোগ দিয়ে নিজ এলাকায় একটি অট্টলিকা বাড়ি নির্মাণ করেছেন। সেখানে তিনি নানা অপকর্ম করে থাকেন।

এদিকে ফেসবুকসহ বিভিন্ন যোগাযোগ মাধ্যমে প্রতিমন্ত্রীকে গালি দেওয়ার ভিডিওটি ভাইরাস হলে সমাহের সর্বস্তরেরর মানুষ কথিত এই যুবলীগ নেতার বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নেওয়ার জন্য বর্তমান সরকারের প্রতি আহবান জানিয়েছেন।
এঘটনায় নিজের অপকর্ম আড়াল করতে গতকাল নিজ এলাকায় ভুইফোড় কিছু লোকদেরকে নিয়ে এক লোক দেখানো সংবাদ সম্মেলন করে নিজের অপকর্ম ঢাকার চেষ্টা করেন ও বলেন তার কথা বিকৃত একটি মহল ফেসবুকে অডিও রেকড বের করেছেন।

অবিলম্বে এলাকাবাসী এই ভয়ঙ্কর কথিত যুবলীগ নেতাকে গ্রেপ্তার করে আইনের আওতায় আনার দাবি জানিয়েছেন।
এবিষয়ে স্থানীয় পুলিশ ও র‌্যাব বলছেন ভয়ঙ্কর এই কথিত যুবলীগ নেতা ও অবৈধ গ্যাস সংযোগকারী ও প্রতিমন্ত্রীকে গালি দেওয়ার কারণে তাকে আটকের প্রক্রিয়া চলছে।

এলাকাবাসী এই কথিত যুবলীগ নেতার সম্পাদের পাহাড়ের খোজে দুদককে অনুসন্ধানের আহবান জানিয়েছেন।

সূত্র:newsprotidinerkagoj