বাউফলে সারে তিন লাখ টাকায় রফাদফা হলো তিন খুনের ঘটনা!

প্রকাশিত: ১১:১৭ অপরাহ্ণ, জুন ২২, ২০২০
0Shares

পটুয়াখালী প্রতিনিধি:
মাত্র সারে তিন লাখ টাকায় রফাদফা করা হলো তিন খুনের ঘটনা! স্থানীয় কয়েক প্রভাবশালীদের মধ্যস্ততায় সোমবার এ রফাদফা অনুষ্ঠিত হয়।
সংশ্লিষ্ট সুত্রে জানা গেছে, ১৮ জুন সকালে নুরাইপুর লঞ্চ ঘাট এলাকার আলগী নদীতে ঢাকা-কালাইয়াগামী ঈগল-৪ নামের একটি যাত্রীবাহি দোতালা লঞ্চের ধাক্কায় খেয়া নৌকা ডুবে গামেন্টস কর্মী আসলাম তার স্ত্রী জান্নাত বেগম এবং আনোয়ার হোসেন নিহত হয়। ঘটনাটি ধামাচাপা দিতে লঞ্চ কর্তৃপক্ষের পক্ষে ইউপি চেয়ারম্যান মহিউদ্দিন লাভলু, আব্দুস ছালাম ও ফরিদ আহম্মেদ রফাদফার উদ্যোগ নেন। সেই অনুযায়ি সোমবার সকালে লঞ্চ কোম্পানির ম্যানেজার রাব্বানী, লঞ্চমালিকের শ্যালক জাকির হোসেন ও ঘাট ম্যানেজার বাবুলের উপস্থিতি তিন খুনের মূল্য নির্ধারণ করা হয় সারে ৩ লাখ টাকা।

এ বিষয়ে ঈগল লঞ্চের মালিক আবদুর জব্বার মিয়া বলেন, ‘আপোষ মিমাংশা করা হয়েছে । ম্যানেজার রব্বানীর সাথে আলাপ করেন ।’
ম্যানেজার রব্বানি বলেন, ‘স্থানীয় ফরিদ আহম্মেদ ও চেয়ারম্যানের সিদ্ধান্ত মোতাবেক ক্ষতিগ্রস্থ পরিবারকে ৩ লাখ ৫০ হাজার টাকা দেয়া হয়েছে ।’
এ বিষয়ে ফরিদ আহম্মেদ বলেন, ‘আমি কিছুই জানিনা। লঞ্চমালিকদের সাথে নিহতর পরিবার আপোষ মিামংসা হয়েছে।’
এ বিষয়ে বাউফল থানার অফিসার ইনচার্জ (ওসি) মোস্তাফিজুর রহমান বলেন, ‘শুনেছি ক্ষতিগ্রস্থ পরিবারের সাথে টাকা পয়সা নিয়ে আপোষ মিমাংসা হয়েছে। নিহত পরবিার কোন অভিযোগ না থাকায় আইনগত ব্যবস্থা নেয়া যায়নি।