যে বয়স থেকে না’রীরা শা’রীরিক মি’লনে বেশি তৃ’প্তি পায় ও অ’ধিক আ’গ্রহ দেখায়

প্রকাশিত: ৪:৫১ অপরাহ্ণ, জুন ২৩, ২০২০
0Shares

অনলাইন ডেক্স: শা’রীরিক স’ম্পর্কের মধ্যে সন্তুষ্টি খুবই মুখ্য একটি বিষয়। গবেষণায় দেখা গেছে, নারীদের মি’লনের প্রতি সন্তুষ্টি বয়স বাড়ার সঙ্গে সঙ্গে বৃদ্ধি পায়।

বয়স ৪০-এ গড়ানোর পর থেকেই নারীদের শারীরিক সম্পর্কে ক্রমশ সন্তুষ্টি বাড়তে থাকে।সম্প্রতি ৪০ বছর থেকে ১০০ বছর বয়সী নারীদের নিয়ে একটি গবেষণা করা হয়।

এ গবেষণায় প্রায় দেড় হাজার নারী অংশগ্রহণ করেন। যেখানে দেখা যায়, বয়স বেশি হওয়া সত্ত্বেও অর্ধেকের বেশি নারী তাদের শারীরিক সম্পর্কে বেশ সক্রিয়।

এমনকি মি’লনের সময় প্রচুর উ’ত্তেজিত হতে সক্ষম।পরবর্তীতে দেখা যায়, যাদের বয়স ৫৫ বছরের কম কিংবা ৮০ বছরের বেশি তারাও মিলনে সর্বাধিক সন্তুষ্টি

পান বলে সাক্ষাৎকারে জানান।অংশগ্রহণকারী নারীদের ওপর যৌ’ন সংক্রমণ ও যৌ’ন জীবনে হরমোন থেরাপির প্রভাবকে কেন্দ্রে রেখে এ গবেষণা করা হয়।

গবেষণার ফলাফলটি গত জানুয়ারিতে আমেরিকান জার্নাল অব মেডিসিনে প্রকাশ করা হয়।এক সাক্ষাৎকারে গবেষক এলিজাবেথ ব্যারেট-কনর বলেন, ‘আমি খুবই

আশ্চর্য হয়েছি যখন জানলাম ৮০ বছরের বেশি বয়স হওয়া সত্ত্বেও নারীরা মি’লনে সর্বাধিক সন্তুষ্টি পান।’তিনি বলেন, ‘বয়স বাড়ার সঙ্গে সঙ্গে নারীদের যৌ’ন

কার্যকলাপ কমে যাওয়াতে মিলনের প্রতি অপেক্ষাকৃত ঝোঁক কম দেখা যায়।অধিকতর বয়স্ক নারীরাও কিন্তু যৌ’নতার দিক দিয়ে নিয়মিত সক্রিয় নন। তবে যৌ’ন কার্যকলাপে ঠিকই স্বাচ্ছন্দ্যবোধ করেন। আর এ ধরনের বয়স্ক নারীরা সোহাগপূর্ণ স্পর্শে, দীর্ঘকালীন ঘনিষ্ঠ পরিচয়ে অ’ন্তরঙ্গ’তার বিনিময়েও সন্তুষ্টি পান।’গবেষণায় আরও দেখা যায়, কোন ধরনের শারীরিক সম্পর্ক না করেও সুস্বাস্থ্যবান আছেন কিছু নারী। ৬৫ বছরের কম বয়সী নারীরা মিলনের দিক দিয়ে সক্রিয়

তবে গবেষকরা এখনও স্পষ্ট নন যে, নিয়মিত যৌ’ন কার্যকলাপের মাধ্যমেই কি সন্তুষ্টি বাড়ে নাকি কাছাকাছি অন্য কোনো উপায়ে।অন্যদিকে যৌ’ন রোগের অধিকাংশ গবেষণায় দেখা যায়, অল্পবয়সীদের প্রধান অ’ভিযোগ হলো, নিয়মিত যৌ’নতাতে খুব কম আগ্রহ পান তারা।

বয়স্ক নারীরাও যে কেবল শারীরিক সম্পর্কে আগ্রহী তেমন কিন্তু নয়। তবে অল্পবয়সীদের তুলনা তারা মিলন ব্যতীত যৌ’ন কার্যকলাপের মাধ্যমে সন্তুষ্টি অর্জনে বেশি স্বাচ্ছন্দ্যবোধ করেন।

অনেকের কাছে মিলনের সর্বোচ্চ সন্তুষ্টি মানেই চমৎকার যৌ’ন সম্পর্ক। আবার অনেকেই ভাবেন যৌ’ন কার্যকালাপ কমে যাওয়ার কারণেই মিলনের প্রতি আগ্রহ কমে গেছে।তবে গবেষণাটির পেছনে আরও একটি গুরুত্বপূর্ণ কারণ হচ্ছে,’গবেষণায় আরও দেখা যায়, কোন ধরনের শারীরিক সম্পর্ক না করেও সুস্বাস্থ্যবান আছেন কিছু নারী।

৬৫ বছরের কম বয়সী নারীরা মিলনের দিক দিয়ে সক্রিয় অনেকেই মনে করেন বয়স বাড়ার সঙ্গে সঙ্গে শারীরিক সম্পর্কের প্রতি তৃপ্তি বা ঝোঁক কমে যায়। তাদের এই ভ্রান্ত ধারণা দূর করতেই এখানে বলা হয়েছে, বয়স্ক দম্পতিদের জন্য আগামীতে সন্তোষজনক সম্পর্ক অপেক্ষা করছে।

সূত্র: