শেরপুরের নকলায় ক্ষুদ্র নৃগোষ্ঠী শিক্ষার্থীদের মাঝে শিক্ষাবৃত্তি বিতরণ

প্রকাশিত: ৪:৫৯ অপরাহ্ণ, জুন ২৯, ২০২০
0Shares

মো. মোশারফ হোসাইন, শেরপুর প্রতিনিধি:
শেরপুরের নকলায় ক্ষুদ্র নৃগোষ্ঠীর ১৫১ শিক্ষার্থীদের মাঝে শিক্ষাবৃত্তি, ১১ জনের মাঝ বাইসাইকেল বিতরণ এবং ৫টি দরিদ্র পরিবারের মাঝে সুপেয় গভীর নলকূপ ও ৩টি দরিদ্র পরিবারের মাঝে সেমি পাকা স্বাস্থ্য সম্মত লেট্রিন স্থাপনের জন্য অনুদান বিতরণ করা হয়েছে। গণপ্রজাতন্ত্রী বাংলাদেশ সরকারের মাননীয় প্রধানমন্ত্রী জননেত্রী শেখ হাসিনা’র কার্যালয় হতে প্রাপ্ত বরাদ্দে হতে ক্ষুদ্র নৃগোষ্ঠীর মানুষের জীবন মান উন্নয়নে গৃহীত “বিশেষ এলাকার জন্য উন্নয়ন সহায়তা” শীর্ষক কর্মসূচির আওতায় এ শিক্ষা বৃত্তি প্রদান, বাইসাইকেল বিতরণ ও অনুদান দেওয়া করা হয়।

সোমবার (২৯ জুন) দুপুরে নকলা উপজেলা প্রশাসনের আয়োজনে উপজেলা পরিষদের মিলনায়তনে উপজেলা নির্বাহী অফিসার (ইউএনও) জাহিদুর রহমানের সভাপতিত্বে এক বিতরণী অনুষ্ঠানের মাধ্যমে ক্ষুদ্র নৃগোষ্ঠীর ১৫১ জন শিক্ষার্থীদের মাঝে শিক্ষাবৃত্তি হিসেবে ২ লাখ ১৮ হাজার ১০০ টাকা এবং সুপেয় গভীর নলকূপ স্থাপনের লক্ষে ৫টি পরিবারের মাঝে প্রতিটির জন্য ১০ হাজার টাকা করে ৫০ হাজার টাকা ও সেমি পাকা স্বাস্থ্য সম্মত লেট্রিন স্থাপনের লক্ষে ৩টি পরিবারের প্রতিটির মাঝে ৪৮ হাজার টাকা করে এক লাখ ৪৪ হাজার টাকাসহ নগদ মোট ৪ লাখ ১২ হাজার ১০০ টাকা বিতরণ করা হয়। তাছাড়া ১১জন শিক্ষার্থীর মাঝে ৮ হাজার টাকা মূল্যের একটি করে বাইসাইকেল বিতরণ করা হয়।

এসময় প্রধান অতিথি হিসেবে উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান শাহ মো. বোরহান উদ্দিন এবং বিশেষ অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন সহকারী কমিশনার (ভূমি) তাহমিনা তারিন ও উপজেলা মাধ্যমিক শিক্ষা অফিসার মোহাম্মদ আব্দুর রশিদ।
তাছাড়া অন্যান্যদের মধ্যে ট্রাইবাল ওয়েলফেয়ার এ্যাসোশিয়েশন নকলা উপজেলা শাখার সভাপতি সুভাষ চন্দ্র বিশ্বাস, সহসভাপতি রণজিৎ কুমার বিশ্বাস, জেনারেল সেক্রেটারি রামচন্দ্র বিশ্বাস, সদস্য নিমাই চন্দ্র বিশ্বাস, নান্ডু চন্দ্র বিশ্বাস, প্রফুল্ল মারাক ও নিপেন চন্দ্র বিশ্বাসসহ সংগঠনের অন্যান্য কর্মকর্তা, ক্ষুদ্র নৃগোষ্ঠীর দেড় শতাধিক শিক্ষার্থী, অভিভাবক ও স্থানীয় সাংবাদিকগন উপস্থিত ছিলেন।

ট্রাইবাল ওয়েলফেয়ার এ্যাসোশিয়েশন নকলা উপজেলা শাখার কর্মকর্তাদের দেয়া তথ্য মতে, উপজেলার প্রাক প্রাথমিকের ৭৮ জন শিশু শিক্ষার্থীদের প্রতিমাসে ২০০ টাকা হারে ৫ মাসের একত্রে প্রতিজনে এক হাজার টাকা করে মোট ৭৮হাজার টাকা, নিম্ন মাধ্যমিক ও মাধ্যমিক বিদ্যালয়ের ৪৭ শিক্ষার্থীদের প্রতিমাসে ৫০০ টাকা হারে ৩ মাসের একত্রে প্রতিজনে এক হাজার ৫০০ টাকা করে ৭০ হাজার ৫০০ টাকা, উচ্চ মাধ্যমিকের ১৪ শিক্ষার্থীদের প্রতিমাসে ৮০০ টাকা হারে ৩ মাসের একত্রে প্রতিজনে ২ হাজার ৪০০ টাকা করে ৩৩ হাজার ৬০০ টাকাসহ মোট ২ লাখ ১৮ হাজার ১০০ টাকা শিক্ষা বৃত্তি প্রদান করা হয়। তাছাড়া ৫ টি পরিবারের মাঝে সুপেয় গভীর নলকূপ স্থাপনের জন্য ৫০ হাজার টাকা ও ৩টি পরিবারের মাঝে সেমি পাকা স্বাস্থ্য সম্মত লেট্রিন স্থাপনের জন্য এক লাখ ৪৪ হাজার টাকা অনুদান প্রদান করাসহ ১১জন শিক্ষার্থীর মাঝে ৮ হাজার টাকা মূল্যের একটি করে বাইসাইকেল বিতরণ করা হয়।