কালীগঞ্জে চিত্রা নদীতে বাঁধ দিলেই ব্যবস্থা , কোনো ছাড় নেই

প্রকাশিত: ১১:৫১ অপরাহ্ণ, জুলাই ১, ২০২০
0Shares

মতিয়ার রহমান ঝিনাইদহ :
ঝিনাইদহ কালীগঞ্জের মস্তবাপুর গ্রামের মধ্যে চিত্রা নদীতে বাঁধ দিয়ে রেনু মাছ নিধনের অপরাধে বিপুল হোসেন শাহীন নামের এক ব্যক্তিকে ৫’শত টাকা জরিমানা করেছে ভ্রাম্যমান আদালত। কালীঞ্জের সহকারী কমিশনার ( ভূমি) ও নির্বাহী ম্যাজিষ্ট্রেট ভুপালি সরকার এ আদালত পরিচালনা করেন। শাহীন মস্তবাপুর গ্রামের মোতালেব মন্ডলের ছেলে। ভ্রাম্যমান আদালত পরিচালনার সময় কালীগঞ্জ থানার এএসআই লিটনসহ সঙ্গীয় ফোর্স উপস্থিত ছিলেন।

সহকারী কমিশনার (ভূমি) ভুপালি সরকার জানান, উপজেলার নিয়ামতপুর ইউনিয়নের মস্তাবাপুর গ্রামের মধ্যে চিত্রানদীতে বাঁধ দিয়ে উন্মুক্ত জলাশয়ের রেনু মাছ শিকার করা হচ্ছে খবর পেয়ে তিনি বুধবার দুপুরে অভিযান চালান। এ সময় মৎস রক্ষা ও সংরক্ষণ আইন ১৯৫০ মোতাবেক ওই গ্রামের বিপুল হোসেন শাহিন নামের একজনকে ৫’শ টাকা জরিমানা করেন। এছাড়াও তিনি গ্রামবাসীকে সচেতন করে তাদের মাধ্যমে নদী থেকে দুটি বাঁধ অপসারন করেন।

তিনি আরও বলেন, উন্মুক্ত জলাশয়ের মাছে সকলের অধিকার রয়েছে। তবে এখন মা মাছ গুলো ডিম ও রেণু পোনা দিচ্ছে। ফলে নদীতে বাঁধ দিয়ে মাছ শিকার করলেই তার বিরুদ্ধে আইনানুগ ব্যবস্থা গ্রহন করা হবে। তাই নদীতে বাঁধ না দেবাবর জন্য অনুরোধ করেন।