শেরপুর হেল্পলাইন’র হেল্প নিয়ে বেজায় খুশি

প্রকাশিত: ৯:৩২ অপরাহ্ণ, জুলাই ২, ২০২০
0Shares
মো. মোশারফ হোসাইন, শেরপুর প্রতিনিধি:
“শেরপুর হেল্পলাইন” নামে ফেইসবুক ভিত্তিক একটি গ্রুপে যেকেউ হেল্প (সাহায্য) চেয়ে গ্রুপের সদস্যদের হেল্প বা সাহায্য নিয়ে সবাই খুশি। ২০ হাজারের অধিক সদস্যের এ ফেইসবুক গ্রুপে বিভিন্ন সমস্যার সমাধানের আশায় পোষ্ট দিলে মিলছে সমাধানের সাড়া। এ গ্রুপটি ইতিমধ্যে শেরপুর জেলার সকল শ্রেণি-পেশার মানুষের কাছে আস্থা ও জনপ্রিয়তার শীর্ষ স্থানে আছে বলে অনেকে মনে করছেন। এ গ্রুপটি শেরপুরের স্কুল-কলেজ, মাদ্রাসা ও বিশ্ববিদ্যালয় পড়ুয়া তরুণ স্বেচ্ছাসেবক ও সচেতন সুশীল ব্যক্তি দ্বারা পরিচালিত।
জনস্বার্থে মানুষের মাঝে জনসচেতনতা সৃষ্টি করা, স্বেচ্ছায় রক্ত দান ও রক্তদানে উদ্বুদ্ধ করা, একে অন্যের বিপদে এগিয়ে আশাসহ দেশ ও জনগনের উন্নয়নের লক্ষে ২০১৭ সালে এ গ্রুপটির যাত্রা শুরু হয়। ২০২০ সালের শুরুতে এই গ্রুপের সদস্য সংখ্যা ২০ হাজার অতিক্রম করায় সেবার মান আরও বেড়েছে বলে অনেকে জানান।

শেরপুর জেলার সার্চ ইঞ্জিন নামে খ্যাত এই ফেইসবুক ভিত্তিক গ্রুপের সদস্য সংখ্যা ২০ হাজার অতিক্রম করায় এবং জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের জন্মশতবার্ষিকী উপলক্ষে আজ বৃহস্পতিবার দুপুরের দিকে এ গ্রুপের আয়োজনে বৃক্ষ রোপণ কর্মসূচির উদ্বোধন কার হয়েছে। শেরপুর শহরের পৌর পার্ক মাঠে পুলিশ সুপার কাজী আশরাফুল আজীম পিপিএম প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত থেকে বৃক্ষ রোপণ কর্মসূচির উদ্বোধন করার কথা থাকলেও পরে পুলিশ সুপার মহোদয়ের পক্ষে কর্মসূচির উদ্বোধন করেন অতিরিক্ত পুলিশ সুপার (সদর সার্কেল) মো. আমিনুল ইসলাম। এসময় বিশেষ অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন শেরপুর প্রেস ক্লাবের সভাপতি শরিফুর রহমান, শেরপুর জনউদ্যোগের আহব্বায়ক ও নবারুন পাবলিক স্কুল এন্ড কলেজের অধ্যক্ষ আবুল কালাম আজাদ প্রমুখ। এসময় শেরপুর সদর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (তদন্ত) মনিরুল আলম ভুঁইয়া, শেরপুর হেল্পলাইনের এডমিন প্যানেলের সদস্য প্রণব কুমার দাস, মারুফ আহমেদ, লুৎফুন্নাহার স্বর্ণা, মিঠুন কুমার দে, প্রান্ত কুমার সাহা, সৌরজিৎ রায়, নিপুণ চন্দ্র, তিথি নন্দী, অভিজিৎ চক্রবর্তী ও শারমিন সম্পাসহ অন্যান্য সদস্য ও স্থানীয় সাংবাদিকগন উপস্থিত ছিলেন।
সার্চ ইঞ্জিন নামে খ্যাত এ গ্রুপের এডমিন প্যানেলের অনেক সদস্যরা জানান, এ গ্রুপের মাধ্যমে যেকেউ কুরিয়ার সার্ভিসের ঠিকানাসহ যেকোন গুরুত্বপূর্ণ যোগাযোগের ঠিকানা জানতে, গুরুতর রোগীর রক্তের প্রয়োজনে, কারও জরুরি প্রয়োজনে জেলা-উপজেলা প্রশাসন ও কোন থানার ওসির নাম্বারসহ জেলা-উপজেলায় কর্মরত যেকোন দপ্তরের উর্ধ্বতন কর্মকর্তাদের অফিসিয়াল নম্বর জানতে, কারও শখের জিনিস পাওয়ার ঠিকানা জানতে বা ক্রয়-বিক্রয় করতে, গুরুত্বপূর্ণ কোনো কিছু হারিয়ে গেলে তা পেতে প্রয়োজনীয় পরামর্শদানে, শেরপুর থেকে ছেড়ে যাওয়া বা শেরপুরে আসে এমন যেকোন বাস সার্ভিসের সময়সূচি জানতে, জরুরি প্রয়োজনে বিশিষ্ট চিকিৎসকের ঠিকানা জানতে, বাসা ভাড়া কিংবা মেসে সিটের প্রয়োজনে, বিভিন্ন শিক্ষা প্রতিষ্ঠানের ভর্তির তথ্য পেতে এমন হাজারও প্রয়োজনে এ গ্রুপে পোস্ট দিলে দ্রুত সময়ের মধ্যে প্রয়োজনে গ্রুপের সকল সদস্যরা মিলে এর সমাধান দেওয়ার চেষ্টা করা হয়। ফলে ফেইসবুক ভিত্তিক এ গ্রুপের সুবিধাভোগীর সংখ্যা ও কর্মপরিধি দিন দিন বাড়ছে। সাধারণ জনগনরাও এই গ্রুপের দিকে ঝুঁকছেন।