চীন প্রথমে করোনার ব্যাপারে কিছু জানায়নি: বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থা

প্রকাশিত: ৬:২১ অপরাহ্ণ, জুলাই ৪, ২০২০
0Shares

করোনাভাইরাস সংক্রমণের বিষয়ে বেইজিংয়ের তরফে তাদের কিছু জানানো হয়নি, তারা প্রথম নিজেদের দফতর সূত্রেই ভাইরাল নিউমোনিয়া সম্পর্কে জেনেছিল বলে দাবি করেছে বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থা (ডব্লিউএইচও)। এক বিবৃতিতে বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থা জানিয়েছে, চীনা প্রশাসন নিজে থেকে আমাদের কিছু জানায়নি। চীনে অবস্থিত বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থার দফতর থেকে আমরা উহানের প্রথম নিউমোনিয়া সম্পর্কে জেনেছিলাম।

এর আগে চীনকে আড়াল করার অভিযোগ উঠেছিল বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থার বিরুদ্ধে। মার্কিন প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্প অভিযোগ তুলেছিলেন, চীন তথ্য গোপন করছে। আর বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থা তাদের আড়াল করছে। এমনকি বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থাকে চীনের স্বাস্থ্য সংস্থা বলেও তোপ দেগেছিলেন মার্কিন প্রেসিডেন্ট।

৯ এপ্রিল বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থার তরফে যে প্রাথমিক টাইমলাইন প্রকাশ করা হয়েছিল, তাতে বলা হয়েছিল, হুবেই প্রদেশের উহান মিউনিসিপ্যাল হেলথ কমিশনের তরফে প্রথম নিউমোনিয়ার ঘটনার কথা তারা জানতে পেরেছিলেন। ২০ এপ্রিল সংস্থার প্রধান টেড্রাস আধামন ঘেব্রেইয়েসুস বলেছিলেন, প্রথম সংক্রমণের কথা তারা চীনের একটি সংস্থা সূত্রে জেনেছেন। কিন্তু এখন যে পূর্ণ ক্রোনোলজি প্রকাশ করা হয়েছে বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থার তরফে তাতে স্পষ্ট বলা হয়েছে, চীনের প্রশাসনের তরফে বিশ্ব স্বাস্থ্য প্রথমে কিছু জানেনি। তাদের দফতর মারফত প্রথম তারা অজানা নিউমোনিয়া সম্পর্কে জানতে পারেন এবং তা জানতে পারেন ডিসেম্বর মাসের শেষ সপ্তাহে।

বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থা আরও বলেছে, তাদের চীনের অফিসের তরফে যেদিন তারা প্রথম কেসের খবর পান সেদিনই কয়েক ঘণ্টার মধ্যে তাদের মহামারি বিভাগ জানতে পারে যে, একজন নন, উহানে একসঙ্গে অনেকে এই রোগে আক্রান্ত হয়েছেন। ৩১ ডিসেম্বর প্রথম উহানের স্বাস্থ্য সংস্থার ওয়েবসাইটে ভাইরাল নিউমোনিয়ার কথা উল্লেখ করা হয়েছিল বলে জানিয়েছে বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থা।
নতুন টাইমলাইনে বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থা আরও জানিয়েছে, ১ ও ২ জানুয়ারি তাদের তরফে চীনা প্রশাসনের কাছে এ ব্যাপারে জানতে চাওয়া হয়। ৩ জানুয়ারি চীনা প্রশাসন তাদের রিপোর্ট দেয়।ইতিমধ্যেই বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থাকে অনুদান দেওয়া বন্ধের কথা ঘোষণা দিয়েছেন ট্রাম্প। মার্কিন প্রেসিডেন্টের প্রথম থেকেই অভিযোগ ছিল, চীন তথ্য লুকাচ্ছে আর বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থা তাকে আড়াল করছে।

আরিফুল ইসলাম (বার্তা সম্পাদক)
        “দ্যা নিউ স্টার”