সবজির চড়া দামের মধ্যে স্বস্তি দিচ্ছে মাছ

প্রকাশিত: ৩:৫০ অপরাহ্ণ, জুলাই ৫, ২০২০
0Shares

আগের সপ্তাহের মতোই রাজধানীর বিভিন্ন বাজারে চড়া দামে বিক্রি হচ্ছে আলু, পটল, বেগুন, বরবটি, ঢেঁড়স, ধুন্দল, ঝিঙে, করলা, পেঁপেসহ প্রায় সব ধরনের সবজি। তবে কিছুটা কমেছে মাছের দাম। সপ্তাহের ব্যবধানে বেশিরভাগ মাছের দাম কেজিতে ২০ থেকে ৪০ টাকা কমেছে।

বিভিন্ন বাজারে খোঁজ নিয়ে জানা যায়, মান ও বাজারভেদে বেগুনের কেজি বিক্রি হচ্ছে ৭০ থেকে ১০০ টাকা। গাজরের কেজি মানভেদে ৮০ থেকে ১২০ টাকা বিক্রি হচ্ছে। পাকা টমেটোর কেজি বিক্রি হচ্ছে ৬০ থেকে ৮০ টাকা। গত সপ্তাহেও এ সবজিগুলোর দাম এমন চড়া ছিল। শুধু বেগুন, গাজর, টমেটো নয়; বাজারে এখন সব ধরনের সবজি চড়া দামে বিক্রি হচ্ছে। বাজারভেদে বরবটির কেজি বিক্রি হচ্ছে ৬০ থেকে ৮০ টাকা। চিচিংগার ৫০ থেকে ৬০ টাকা, পেঁপে ৪০ থেকে ৫০ টাকা, পটল ৩০ থেকে ৫০ টাকা, করলা ৫০ থেকে ৭০ টাকা, ঝিঙে ৫০ থেকে ৬০ টাকা, কচুর লতি ৪০ থেকে ৬০ টাকা, কচুর মুখী ৬০ থেকে ৭০ টাকা, কাকরোল ৬০ থেকে ৭০ টাকা, ঢেঁড়স ৩০ থেকে ৫০ টাকা কেজি বিক্রি হচ্ছে। আলুর কেজি বিক্রি হচ্ছে ২৮ থেকে ৩২ টাকা। সবজির দামের বিষয়ে ব্যবসায়ীরা জানান, দুই সপ্তাহ ধরেই বাজারে সব ধরনের সবজির দাম কিছুটা বাড়তি। এখন বাজারে তুলনামূলক সবজির সরবরাহ কম। এর মধ্যে উত্তরাঞ্চলে বন্যা দেখা দিয়েছে।

এতে সামনে সবজির দাম আরও বাড়াতে পারে। সবজির পাশাপাশি চড়া দামে বিক্রি হচ্ছে কাঁচামরিচ। বাজারভেদে কাঁচামরিচের পোয়া (২৫০ গ্রাম) ৩০ থেকে ৪০ টাকা বিক্রি হচ্ছে। ডিম ও মুরগির দামও কিছুটা বাড়তি। ডিমের ডজন আগের মতো ১০০ থেকে ১০৫ টাকা বিক্রি হচ্ছে। ব্রয়লার মুরগির কেজি বিক্রি হচ্ছে ১৫০ থেকে ১৭০ টাকা। লাল লেয়ার মুরগি ২২০ থেকে ২৫০ টাকা এবং পাকিস্তানি সোনালী মুরগি ২৭০ থেকে ২৯০ টাকা কেজি বিক্রি হচ্ছে। সবজি, ডিম, মুরগির দাম কিছুটা চড়া হলেও কিছুটা স্বস্তি দিচ্ছে পেঁয়াজের দাম। দেশি পেঁয়াজের কেজি বিক্রি হচ্ছে ৩৫ থেকে ৪৫ টাকা বিক্রি হচ্ছে।

আর আমদানি করা পেঁয়াজের কেজি বিক্রি হচ্ছে ২৫ থেকে ৩০ টাকা। এদিকে সপ্তাহের ব্যবধানে কিছুটা কমেছে মাছের দাম। ২০ থেকে ৪০ টাকা কমে রুই মাছ বিক্রি হচ্ছে ২০০ থেকে ৪০০ টাকা কেজি। এছাড়া পাঙাশ ১২০ থেকে ১৭০ টাকা, তেলাপিয়া ১২০ থেকে ১৬০ টাকা, পাবদা ৩০০ থেকে ৪৫০ টাকা, কাঁচকি ২৫০ থেকে ৩৫০ টাকা, সরপুঁটি (চায়না পুঁটি) ১৬০ থেকে ২৫০ টাকা, দেশি পুঁটি ৫০০ থেকে ৭০০ টাকা, ট্যাংরা ৫৫০ থেকে ৭০০ টাকা, শিং ৩০০ থেকে ৫০০ টাকা, চিংড়ি ৪০০ থেকে ৯০০ টাকা কেজি বিক্রি হচ্ছে। আর ইলিশ মাছ আগের মতোই এক কেজি সাইজের ১০০০ থেকে ১২০০ টাকা বিক্রি হচ্ছে। ৫০০ থেকে ৭৫০ গ্রামের ইলিশ বিক্রি হচ্ছে ৭৫০ টাকা থেকে ৮০০ টাকা এবং ছোট ইলিশ আকারভেদে ৩০০ থেকে ৫০০ টাকায় বিক্রি হচ্ছে।

আরিফুল ইসলাম (বার্তা সম্পাদক)
             “দ্যা নিউ স্টার”