চূড়ান্ত লভ্যাংশ দেবে না বাটা সু, মুনাফায় পতন

প্রকাশিত: ২:৪২ অপরাহ্ণ, জুলাই ৯, ২০২০
0Shares

অনলাইন ডেক্স: পুঁজিবাজারে তালিকাভুক্ত বাটা সু’র পরিচালনা পর্ষদ শেয়ারহোল্ডারদের চূড়ান্ত লভ্যাংশ না দেয়ার সিদ্ধান্ত নিয়েছে। তবে কোম্পানিটি ১২৫ শতাংশ অন্তর্বর্তী লভ্যাংশ ঘোষণা করেছিল। সে হিসেবে ২০১৯ সালের সমাপ্ত বছরের জন্য শেয়ারহোল্ডাররা কোম্পানিটি থেকে সব মিলিয়ে ১২৫ শতাংশ নগদ লভ্যাংশ পাবে।

লভ্যাংশ ঘোষণার পাশাপাশি কোম্পানিটি চলতি বছরের প্রথম প্রান্তিকের (জানুয়ারি-মার্চ) আর্থিক প্রতিবেদন প্রকাশ করেছে। এ প্রতিবেদনের তথ্য অনুযায়ী প্রতিষ্ঠানটির মুনাফা আগের বছরের তুলনায় কমেছে।

কোম্পানিটির পরিচালনা পর্ষদ সভা শেষে প্রকাশিত আর্থিক প্রতিবেদন পর্যালোচনা করে এসব তথ্য পাওয়া গেছে। বৃহস্পতিবার ঢাকা স্টক এক্সচেঞ্জের (ডিএসই) মাধ্যমে এ প্রতিবেদন প্রকাশ করা হয়েছে।

লভ্যাংশের বিষয়ে কোম্পানিটির পরিচালনা পর্ষদের নেয়া সিদ্ধান্ত শেয়ারহোল্ডারদের অনুমোদনের জন্য বার্ষিক সাধারণ সভার (এজিএম) তারিখ নির্ধারণ করা হয়েছে আগামী ১০ সেপ্টেম্বর। আর রেকর্ড ডেট নির্ধারণ করা হয়েছে ২৯ জুলাই।

সমাপ্ত হিসাব বছরে কোম্পানিটি শেয়ারপ্রতি মুনাফা (ইপিএস) করেছে ৩৬ টাকা ১১ পয়সা এবং শেয়ারপ্রতি সম্পদ (এনএভিপিএস) দাঁড়িয়েছে ৩৬৪ টাকা ৬৫ পয়সা।

ডিএসই জানিয়েছে, লভ্যাংশ ঘোষণার কারণে আজ কোম্পানিটির শেয়ারের দাম বাড়ার ক্ষেত্রে কোনো সার্কিট ব্রেকার থাকবে না। অর্থাৎ শেয়ার দাম যতখুশি বাড়তে পারবে।

তবে বাংলাদেশ সিকিউরিটিজ অ্যান্ড এক্সচেঞ্জ কমিশন (বিএসইসি) নির্ধারিত সীমার নিচে শেয়ার দাম নামতে পারবে না।

এদিকে চলতি বছরের জানুয়ারি- মার্চ প্রান্তিকের তথ্য অনুযায়ী, প্রতিষ্ঠানটির শেয়ারপ্রতি মুনাফা হয়েছে ২ টাকা ৭ পয়সা, যা আগের বছরের একই সময়ে ছিল ৩ টাকা ২৬ পয়সা। অর্থাৎ কোম্পানিটির মুনাফা আগের বছরের তুলনায় ১ টাকা ১৯ পয়সা কমেছে।

মুনাফা কমলেও কোম্পানিটির শেয়ারপ্রতি সম্পদ মূল্য আগের বছরের তুলনায় বেড়েছে। চলতি বছরের মার্চ শেষে শেয়ারপ্রতি সম্পদ মূল্য দাঁড়িয়েছে ৩৬৬ টাকা ৭২ পয়সা, যা ২০১৯ সাল মার্চ শেষে ছিল ৩৬৪ টাকা ৬৫ পয়সা।

এদিকে অপারেটিং ক্যাশ ফ্লো’র তথ্য অনুযায়ী, চলতি বছরের জানুয়ারি থেকে মার্চ সময়ে শেয়ারপ্রতি অপারিটিং ক্যাশ ফ্লো দাঁড়িয়েছে ঋণাত্মক ৫ টাকা ৮৮ পয়সা। আগের বছরের একই সময়ে শেয়ার প্রতি ক্যাশ ফ্লো ছিল ৮ টাকা ২ পয়সা।

সূত্র: jagonews24