শেরপুরে জেলা পর্যায়ে শুদ্ধাচার পুরস্কার পেলেন এডিসি এহছানুল মামুন

প্রকাশিত: ১:২১ অপরাহ্ণ, জুলাই ১০, ২০২০
0Shares

মো. মোশারফ হোসাইন, শেরপুর প্রতিনিধি:
শেরপুরে জেলা পর্যায়ে শুদ্ধাচার পুরস্কার-২০১৯ অর্জন করেছেন অতিরিক্ত জেলা প্রশাসক (সার্বিক) ও অতিরিক্ত জেলা প্রশাসক (শিক্ষা ও আইসিটি) এবিএম এহছানুল মামুন।
বৃহস্পতিবার (৯ জুলাই) জেলা প্রশাসন মিলনায়তনে জেলা প্রশাসনের আয়োজনে জেলা প্রশাসক (ডিসি) আনার কলি মাহবুবের সভাপতিত্বে এক বিতরণী অনুষ্ঠানের মাধ্যমে জেলা প্রশাসক আনার কলি মাহবুব অতিরিক্ত জেলা প্রশাসক (সার্বিক) ও অতিরিক্ত জেলা প্রশাসক (শিক্ষা ও আইসিটি) এবিএম এহছানুল মামুনের হাতে শুদ্ধাচার পুরস্কার-২০১৯ তুলে দেন।

জানা যায়, কর্মক্ষেত্রে সৎ, নিষ্ঠাবান, প্রত্যয়ী সরকারি কর্মচারীদের উৎসাহিত করতে গণপ্রজাতন্ত্রী বাংলাদেশ সরকার ২০১৭ সাল হতে সারাদেশে সরকারি দপ্তরসমূহে শুদ্ধাচার পুরষ্কার প্রদান করার সিদ্ধান্ত গ্রহণ করে। তারই ধারাবাহিকতায় করোনা ভাইরাস প্রতিরোধে জেলা প্রশাসন কর্তৃক স্বাস্থ্যবিধি মেনে আয়োজিত বিশেষ সভায় শেরপুর জেলার মান্যবর জেলা প্রশাসক আনার কলি মাহবুব এ শুদ্ধাচার পুরস্কার-২০১৯ বিতরণ করেন। এসময় স্থানীয় সরকার উপ-পরিচালক (ডিডিএলজি) এটিএম জিয়াউল ইসলামসহ জেলা প্রশাসনের অনন্যান্য কর্মকর্তা, উপজেলা নির্বাহী অফিসার, সহকারী কমিশনার (ভূমি), সরকারি বিভিন্ন দপ্তরের প্রধানগণসহ অনেকে উপস্থিত ছিলেন।

অতিরিক্ত জেলা প্রশাসক এবিএম এহছানুল মামুন শুদ্ধাচার পুরস্কার-২০১৯ প্রাপ্তির অনুভুতি প্রকাশ করতে গিয়ে বলেন, ভালো যে কোন স্বীকৃতিই সকলের কাছেই আনন্দের। জেলা পর্যায়ে ‘শুদ্ধাচার পুরস্কার-২০১৯’ প্রাপ্তি তেমনই একটি আনন্দময় অর্জন বলে তিনি মনে করছেন। বিশেষ করে দায়িত্ব পালনের সাথে প্রাপ্তির সমন্বয় হলে দায়িত্বের প্রতি আগ্রহ এবং আত্মবিশ্বাস হাজার গুণ বেড়ে যায়। এ পুরস্কারের জন্য যোগ্য হিসেবে নির্বাচন করায় জেলা প্রশাসক আনার কলি মাহবুব স্যার এর প্রতি কৃতজ্ঞতা ও ধন্যবাদ জ্ঞাপন করা ছাড়াও তাঁর এ পুরস্কার অর্জনের ক্ষেত্রে যে বা যারা অনুপ্রেরণা যুগিয়েছেন বিশেষ করে তাঁর সকল অগ্রজ ও অনুজ সহকর্মীদের প্রতি কৃতজ্ঞতা প্রকাশ করেন অতিরিক্ত জেলা প্রশাসক এবিএম এহছানুল মামুন। পেশাগত এ স্বীকৃতি নিঃসন্দেহে ‘সুখী-সমৃদ্ধ সোনার বাংলা’ গড়ার প্রত্যয়ে অধিকতর আন্তরিকতা ও নিষ্ঠার সাথে কাজ করার অনুপ্রেরণা হিসেবে কাজ করবে বলে তাঁর দৃঢ় বিশ্বাস।