এশিয়া কাপ স্থগিত !

প্রকাশিত: ১১:৪৬ অপরাহ্ণ, জুলাই ১০, ২০২০
0Shares

মহামারি করোনার প্রভাবে চলতি বছরের এশিয়া কাপ স্থগিত করা হয়েছে। বৃহস্পতিবার এশিয়ান ক্রিকেট কাউন্সিল (এসিসি) এক সংবাদ বিজ্ঞপ্তির মাধ্যমে এ তথ্য নিশ্চিত করেছে। চলতি বছরের সেপ্টেম্বর আনুষ্ঠিত হবার কথা ছিল এশিয়া কাপের ১৫তম আসর।

 

টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপের কথা মাথায় রেখে পূর্বে সিদ্ধান্ত নেয়া ছিল এবারের আসরটি হবে টি-টোয়েন্টি ফরম্যাটে। আয়োজক ছিল পাকিস্তান। কিন্তু ভারত -পাকিস্তানের বৈরিতায় দুবাইয়ে আসরটি হওয়ার কথা ছিল। তবে বিশ্ব জুড়ে করোনা মহামারি করোনার কারণে এবারের আসরটি আর হচ্ছে না।

 

এসিসি জানিয়েছে, আগামী বছরের সুবিধাজনক সময়ে পরবর্তী আসর আয়োজন করবে তারা। এর আগে বৃহস্পতিবার ভারতীয় সাবেক অধিনায়ক ও বিসিসিআই এর সভাপতি সৌরভ গাঙ্গুলি দেশটির গণমাধ্যমে জানিয়ে ছিলেন, এ বছরে এশিয়া কাপ হবে না। যদিও নিয়ম অনুযায়ী এ ব্যাপারে চূড়ান্ত সিদ্ধান্ত নেয়ার এখতিয়ার এশিয়ান ক্রিকেট কাউন্সিল বা এসিসির সভাপতি নাজমুল হাসান পাপনের। তিনি বর্তমানে লন্ডনে চিকিৎসাধীন আছেন। তবে অন্দরমহলের খবর হলো বিশ্বজুড়ে করোনাভাইরাস মহামারি পরিস্থিতির উন্নতি না হওয়ায় পূর্বেই সিদ্ধান্ত নেয়া হয়েছিল এশিয়া কাপ স্থগিতের।

 

এসিসি ২০২১ সালের জুনে এ টুর্নামেন্ট আয়োজনের আশা করছে। এমনিতে এ বছরের টুর্নামেন্টের আয়োজক পাকিস্তান হলেও পিসিবি ও এসএলসি আয়োজনের স্বত্ব অদল-বদল করেছিল। ফলে এবারের টুর্নামেন্ট আয়োজন করবে শ্রীলঙ্কার। এসিসি বলছে, ২০২১ সালে শ্রীলঙ্কাই এ টুর্নামেন্ট আয়োজন করবে। তারপরের এশিয়া কাপ অর্থাৎ ২০২২ সালের এশিয়া কাপ হবে পাকিস্তানে।

 

বৃহস্পতিবার সৌরভ গাঙ্গুলি দেয়া খবরটি চাউর হওয়ার পর আজ এসিসি আনুষ্ঠানিকভাবে জানিয়ে দিল। সেপ্টেম্বরে এশিয়া কাপ স্থগিত হওয়ায় পর বাংলাদেশ জাতীয় ক্রিকেট দলের যে খেলাটি আছে। সেটি টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপ। করোনার প্রভাবে টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপ স্থগিতের ঘোষণা এখন সময়ের ব্যাপার। তাই এখন পর্যন্ত ধরা যায় অক্টোবর পর্যন্ত বাংলাদেশ জাতীয় ক্রিকেট দলের কোনো আন্তর্জাতিক ক্রিকেট নেই!

আরিফুল ইসলাম (বার্তা সম্পাদক)
“দ্যা নিউ স্টার”