তাড়াশে সড়ক যেন মরন ফাঁদ পথচারীদের ভোগান্তি

প্রকাশিত: ১০:৫৭ অপরাহ্ণ, জুলাই ১৩, ২০২০
0Shares

মহসীন আলী,তাড়াশ: সিরাজগঞ্জের তাড়াশ-খালকুলা আঞ্চলিক সড়কটি যেন মরন ফাঁদ হয়েছে। মাঝে মাঝে খানা খন্দে এই সড়কটি চলাচলে পথচারীদের ভোগান্তি বেরেছে। হাটিকুমরুল-বনপাড়া মহাসড়কের সাথে সংযুক্ত তাড়াশের এই গুরুত্বপূর্ন সড়কটি এখন মানুষের আলোচনার ঝড়। মাঝে মাঝে সড়কের কার্পেটিং ও ইটের প্রলেপ উঠে বড় বড় গর্ত হয়েছে যেন মিনি পুকুরে। সে গর্তে পরে প্রতিদিনই ভাংছে অটো রিকশার চাকা। রবিবার সকালে সরেজমিনে এ সড়কটি ঘুরে ছোট-বড় খানাখন্দ, ঝুঁঁকি নিয়ে চলা যানবাহন এবং যাত্রী-পথচারীদের নজিরবিহীন ভোগান্তির খন্ড খন্ড দৃশ্য চোখে পরে। মহাসড়ক থেকে তাড়াশ উপজেলায় যাতায়াতের একমাত্র সড়কটিতে প্রতিদিনই দুর্ভোগে শিকার হচ্ছে পথচারীরা । খালকুলা বাজার থেকে মাত্র ১০০ মিটার দুরেই তৈরি হয়েছে একটি গর্ত । গর্ত যেন নয় মনে হয় এটি একটি মিনি পুকুুর ক্ষোভ করে বলেছিলেন চলাচল কারী অটো রিকশাচালক। সেকানকার স্থানীয় বাসীন্দা ওসমান আলী বলেন, কষ্টের যেন শেষ নেই। সামান্য বৃষ্টিতেই এখানকার ২ থেকে ৩ টি বড় বড় গর্ত এখন পুকুরে রূপ নিয়েছে। নিয়ন্ত্রণ হারানোর ভয় নিয়েই এই মরণফাঁদ পারি দিতে হচ্ছে আমাদের।

স্থানীয় যুবলীগ নেতা মইনুল ইসলাম জানান,এই সড়কটি মাস দুই আগে সংস্কার হলেও সড়কটি দিয়ে ড্রাম ট্রাক মাটি পরিবহন করায় ও খালকুলা বাজারের ব্যবসায়ীরা সড়কের দুপাশে মাটি ভরাট করে উচুঁ করায় সড়কে পানি জমে থাকছে। বর্তমানে বড় কোন গাড়ী এদিক দিয়ে চলাচল করতে পারছেনা।

এ ব্যাপারে সিরাজগঞ্জ সড়ক ও জনপদের নির্বাহী প্রকৌশলী আশরাফুল ইসলাম জানান, সড়কটির কিছু অংশ সংস্কার করা হয়েছে। ক্ষতিগ্রস্থ অংশ খুব দ্রুতই মেরামত করা হবে।