আশুলিয়ায় ৪ ভূয়া পুলিশ আটক

প্রকাশিত: ৩:৩২ অপরাহ্ণ, জুলাই ২৭, ২০২০
0Shares

নিজস্ব প্রতিবেদক,সাভার: আশুলিয়ার জামগড়া এলাকায় অভিযান চালিয়ে ডিবি পুলিশ পরিচয়ে ডাকাতির প্রস্তুতি ও চাঁদাবাজির অভিযোগে পুলিশ কনস্টেবলসহ চারজন ভুয়া ডিবি পুলিশকে আটক করেছে র‌্যাব।

সোমবার সকালে বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন র‌্যাব-৪, সিপিসি-২ এর অতিরিক্ত পুলিশ সুপার ও ভারপ্রাপ্ত কোম্পানি কমান্ডার জমির উদ্দীন আহমেদ।

এর আগে রোববার বিকেলে আশুলিয়ার জামগড়া এলাকার নিগার প্লাজার সামনে থেকে তাদের আটক করা হয়।

আটকরা হলেন মানিকগঞ্জ জেলার দৌলতপুর থানার শ্যামপুর গ্রামের মৃত তছলিম উদ্দিনের ছেলে আশুলিয়া থানার কনস্টেবল (২৭), মো. মমিনুল ইসলাম (৩৫), নীলফামারীর ডিমলা বন্দর খড়িবাড়ি গ্রামের আব্দুল লতিফের ছেলে হামিদ (৩২), গাইবান্ধা জেলা সদরের চৌদ্দগ্রামের মৃত তোফাজ্জলের ছেলে ওয়াহেদ (৪০) ও জামালপুর জেলার মেলান্দহ থানার চরগুহিন্দি গ্রামের সুরুজ শেখের ছেলে ওয়াজেদ শেখ (২৩)। তারা সবাই আশুলিয়ার বাইপাইলের বিভিন্ন এলাকায় ভাড়া থাকতেন।

র‌্যাব জানায়, ভুক্তভোগী নুর আলমের মৌখিক অভিযোগের ভিত্তিতে জামগড়ার ওই এলাকায় অভিযান পরিচালনা করে ডিবি পরিচয় দানকারী ও দেশীয় অস্ত্রধারী চারজনকে গ্রেপ্তার করা হয়। এ সময় তাদের কাছ থেকে একটি সাদা রংয়ের নোয়া মাইক্রো, দুটি বড় ছোরা, একটি বড় হাসুয়া, একটি বড় ড্যাগার, একটি লোহা কাটার, একটি মটোরোলা ওয়াকিটকি সেট, একটি হ্যান্ডকাফ, একটি পুলিশ আইডি কার্ড, পুলিশ লেখা স্টিকার একটি, একটি সিগন্যাল লাইট, ৪৮০ গ্রাম গাঁজা, ১৯০ পিস ইয়াবা ট্যাবলেট, ১৬ টি বিভিন্ন ব্যাংকের এটিএম কার্ড, ৩৭ হাজার জাল টাকা, মাদক বিক্রিত নগদ ২৮ হাজার ৮১৫ টাকা, বিভিন্ন রংয়ের সাতটি মানিব্যাগ ও ১২ টি মোবাইল সেট জব্দ করা হয়।

র‌্যাব-৪, সিপিসি-২ এর অতিরিক্ত পুলিশ সুপার ও ভারপ্রাপ্ত কোম্পানি কমান্ডার জমির উদ্দীন আহমেদ বলেন, গ্রেপ্তারকৃত আসামিদের বিরুদ্ধে ডাকাতির প্রস্তুতি, চাঁদাবাজি, মাদকদ্রব্য বিক্রয় ও জাল নোট রাখার অপরাধে আশুলিয়া থানায় চারটি নিয়মিত মামলা রুজু প্রক্রিয়াধীন। ভবিষ্যতে এইরুপ অসাধু চক্রের বিরুদ্ধে র‌্যাব-৪, সিপিসি-২ এর সাঁড়াশি অভিযান অব্যাহত থাকবে বলেও জানান র‌্যাবের এই কর্মকর্তা।