নওগাঁর বদলগাছীতে ঘুষ নিয়ে অপরাধীকে ছেড়ে দিল পুলিশ

প্রকাশিত: ৯:১০ অপরাহ্ণ, আগস্ট ৫, ২০২০
0Shares

মোঃ রুবেল হোসেন  নওগাঁ জেলা প্রতিনিধি : নওগাঁর বদলগাছীতে ঘুষ নিয়ে অপরাধীকে ছেড়ে দেওয়ার অভিযোগ উঠেছে। ৬ মাস আগে হোটেল ব্যবসায়ী মো জহুরুল ইসলাম ১ টি মোবাইল ফোন তার আবর্জনা ফেলার জায়গা থেকে কুরিয়ে পায়। জহুরুল ইসলাম জননী অটোবীর কর্মচারী সাকিবের কাছে ৪৫০০ টাকায় বিক্রয় করে।ফোনটি হারানোর কয়েকদিনের মধ্যে থানায় একটি জিডি করা হয়,জিডি সুত্রে গত ১৭/৭/২০২০ খ্রি: বদলগাছী থানার এস আই গৌরাঙ্গ এবং কনস্টেবল নাজমুল হোসেন ফোন ট্রাকিং এর মাধ্যমে সাকিবের কাছ থেকে হারানো ফোন উদ্ধার করে। অটবীর কর্মচারী সাকিব কে এস আই গৌরাঙ্গ প্রশ্ন করে তুমি ফোন কোথায় পাইছ।জবাবে সাকিব বলে,হোটেল ব্যবসায়ী জহুরলের কাছ থেকে ৪৫০০ টাকা দিয়ে কিনে নিয়েছি।ঘটনাস্থলে জহুরুল ইসলাম কে ডাকা হয়।সে স্বীকার করে যে,সাকিবের কাছে  ৪৫০০ টাকা দিয়ে ফোন বিক্রয় করে। এসআই গৌরাঙ্গ সাকিব কে বলে চোরা ফোন কিনে তুমি অপরাধ করেছ,তোমাকে গ্রেফতার করা হবে,যদি তুমি ৬০০০ টাকা দাও তাহলে তোমাকে ছেড়ে দেব। সাকিব তার মালিকের কাছ থেকে ৬০০০ টাকা ধার করে এসআই গৌরাঙ্গ কে দিলে সাকিব এবং জহুরুল কে ছেড়ে দেওয়া হয়।টাকা দেওয়ার সময় সাকিবের জননী অটোবীর মালিক মো এরশাদ সেখানে উপস্থিত ছিলেন। ফোন উদ্ধার বিষয়ে কম্পিউটার অপারেটর নাজমুল ঘুস নেওয়া বিষয়টি অস্বীকার করে।বিষয়টি জানতে পেরে  এসআই গৌরাঙ্গ মুঠোফোনে গোপনীয়ভাবে বিষয়টি মিটানোর চেষ্টা করেছিল।ভিক্টিম সাকিব এবং স্বাক্ষী এরশাদ ভিডিও জবানবুন্দিতে স্বীকার করে ৬০০০ টাকা ঘুস নিয়ে  অপরাধী/জহুরুল এবং  সাকিবকে ছেড়ে দেয়।

এ বিষয়ে বদলগাছী থানার অফিসার ইনচার্য চৌধুরী জুবায়ের আহমেদ বলেন , যদি ঘুস নিয়ে থাকে, তাদের অফিসিয়াল ডিপার্টমেন্টাল ব্যবস্থা নেওয়া হবে।মাননীয় পুলিশ সুপার মহোদয় , আমাদের কে জানান যে,বিষয়টি তদন্ত করে, ভিক্টিম কে টাকা ফেরত দেওয়া হবে এবং এসআই গৌরাঙ্গ এবং কনস্টেবল নাজমুলকে পানিশম্যান্ট করা হবে।