নৌকা ডুবে মা ছেলেসহ তিনজনের মৃত্যু

প্রকাশিত: ৯:১৯ পূর্বাহ্ণ, আগস্ট ৬, ২০২০
0Shares
সুনামগঞ্জ প্রতিনিধিঃ  
ধর্মপাশায় পৃথক পৃথক ভাবে নৌকা ডুবির ঘটনায় মা ছেলেসহ তিনজনের মৃত্যু হয়েছে। উপজেলার পাইকুরাটি ইউনিয়নের গুমাই নদীতে ঝড়ো বাতাসের কবলে পড়ে নৌকা ডুবিতে কাঞ্চনা আক্তার (৪৫) ও তাঁর ছেলে কাঞ্চন মিয়া (১৪) নামের মা-ছেলে নিখোঁজ হয়।

বুধবার (৫ আগস্ট) দুপুর ১২টার দিকে এই ঘটনা ঘটে। ওইদিন সকাল ১০টার দিকে মা ছেলেসহ একই গ্রামের রফিকুল মিয়ার ছেলে সোহান মিয়া (৮) ও মতলব মিয়ার মেয়ে সাদিয়া আক্তার (৬) গুমাই নদীর পাড়ে ছোট নৌকায় করে কচুর লতা তুলতে গিয়েছিল। পরে দুপুরে বাড়ি ফেরার পথে ঝড়ো বাতাসের কবলে পড়ে তাদের নৌকাটি ডুবে যায়। এসময় স্থানীয়রা সোহান মিয়া ও সাদিয়াকে উদ্ধার করলেও মা ছেলে নিখোঁজ রয়ে যায়। পরে বিকেল চারটার দিকে মা কাঞ্চনা আক্তারের লাশ উদ্ধার করা হয়। কাঞ্চন মিয়াকে উদ্ধারের চেষ্টা চালিয়ে যাচ্ছে স্থানীয়রা।
পাইকুরাটি ইউপি চেয়ারম্যান ফেরদৌসুর রহমান নৌকা ডুবির ঘটনা ও কাঞ্চনা আক্তারের লাশ উদ্ধারের সত্যতা নিশ্চিত করেছেন।
এদিকে চামরদানি ইউনিয়নের দুগনই গ্রামে হাওরের পানিতে ডুবে প্রিয়া মনি (৫) বয়সী এক কন্যা শিশুর মৃত্যু হয়েছে। মঙ্গলবার রাত সাড়ে আটটার দিকে ওই শিশুর লাশ উদ্ধার করা হয়।
প্রিয়া মনি বংশীকুন্ডা উত্তর ইউনিয়নের মহিষখলা গ্রামের হাবিবুর রহমানের মেয়ে। গত সোমবার প্রিয়া মনি বাবার সাথে নানার বাড়ি দুগনই এসেছিল। ওইদিন সন্ধ্যা ৬টার দিকে দুগনই গ্রামের সামনে খেলতে গিয়ে হাওরের পানিতে ডুবে প্রিয়া মনি নিখোঁজ হয়। পরে রাত সাড়ে ১০টার দিকে তার উদ্ধার করে মধ্যনগর থানায় আনা হয়।
মধ্যনগর থানার ওসি আব্দুল্লাহ আল মামুন এ ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করেছেন।