প্রতিমন্ত্রী জুনাইদ আহমেদ পলক তথ্যপ্রযুক্তিতে জাপানি বিনিয়োগের আহ্বান জানিয়েছেন

প্রকাশিত: ২:৩৪ অপরাহ্ণ, আগস্ট ৩০, ২০২০
0Shares

টোকিওস্থ বাংলাদেশ দূতাবাস ও ফুজিতসু রিসার্চ ইন্সটিটিউটের যৌথ উদ্যোগে আয়োজিত এক অনলাইন সেমিনারে যুক্ত হয়ে তিনি একথা বলেন। সেমিনারে বাংলাদেশের তথ্য ও যোগাযোগ প্রযুক্তি বিভাগের সিনিয়র সচিব এন এম জিয়াউল আলম, বাণিজ্য মন্ত্রণালয়ের সচিব জাফর উদ্দিন, বাংলাদেশ হাই-টেক পার্ক অথরিটির ব্যবস্থাপনা পরিচালক হোসনে আরা বেগম, টোকিও দূতাবাসের চার্জ দ্যা অ্যাফায়ারস ড. শাহিদা আকতার যোগদান করেন। সেমিনারে বাংলাদেশের ৫০ টি আইটি প্রতিষ্ঠান এবং জাপানের বিভিন্ন ব্যবসা প্রতিষ্ঠানের শতাধিক প্রতিনিধি অংশগ্রহণ করেন। সেমিনারে স্বাগত বক্তব্যে চার্জ দ্যা অ্যাফায়ারস ড. শাহিদা আকতার সকল অংশগ্রহণকারীকে স্বাগত ও শুভেচ্ছা জানান। ওয়েবিনারে মূল প্রবন্ধ উপস্থাপন করে প্রতিমন্ত্রী জুনাইদ আহমেদ পলক বাংলাদেশের তথ্যপ্রযুক্তি খাতের সম্ভাবনা ও অবারিত সুযোগ সুবিধাগুলো সবার কাছে তুলে ধরেন। তথ্যপ্রযুক্তি খাতে বিনিয়োগের পথ সুগম করতে বাংলাদেশ সরকারের গৃহীত বিভিন্ন পদক্ষেপ যেমন হাইটেক পার্ক, কর সুবিধা, ওয়ান স্টপ সার্ভিস ইত্যাদি বর্ণনা করেন প্রতিমন্ত্রী। এসময় প্রতিমন্ত্রী বাংলাদেশের তথ্যপ্রযুক্তি খাতে বিনিয়োগের যৌক্তিকতাও তুলে ধরেন। পরে বাংলাদেশ হাই-টেক পার্ক অথরিটির ব্যবস্থাপনা পরিচালক হোসনে আরা বেগম হাই-টেক পার্ক থেকে বিনিয়োগকারীদের জন্য দেয়া বিভিন্ন সুবিধা ও সেবাসমূহ বর্ণনা করেন। অনলাইন এই আলোচনায় আরো অংশ নেন জাপান এক্সটারনাল ট্রেড অরগানাইজেশন (জেট্রো)র বাংলাদেশ প্রতিনিধি ইউজি আন্দো, জাপান ইন্টারন্যাশনাল কোঅপারেশন এজেন্সির (জাইকা) উপ-পরিচালক সিইকো ইয়ামাবে, জাপান ইনফরমেশন টেকনোলজি সার্ভিস ইন্ডাস্ট্রিজ অ্যাসোসিয়েশনের (জিসা) মাসাইউকি ওসুকা, বাংলাদেশ অ্যাসোসিয়েশন অফ সফটওয়্যার এন্ড ইনফরমেশন সার্ভিস (বেসিস) এর আলমাশ কবির এবং ফুজিতসু রিসার্চ ইন্সটিটিউটের পক্ষে মাইদুল ইসলাম। পৃথক এক উপস্থাপনায় জাপান-বাংলাদেশ তথ্যপ্রযুক্তি সহযোগিতা খাতে বাংলাদেশে বিনিয়োগ সম্ভাবনা এবং জাপানে বাংলাদেশের দক্ষ আইটি প্রফেশনালদের চাকরির সুযোগ নিয়ে আলোচনা করেন তারেক রাফি ভূঁইয়া। অনুষ্ঠানে বাংলাদেশের সার্বিক অর্থনৈতিক উন্নয়ন এবং হাই-টেক পার্কের ওপর তথ্যচিত্র প্রদর্শন করা হয়। tns:Ai