কোভিড-১৯ বিষয়ক আন্তর্জাতিক সম্মেলনে সিলেটের রেজোয়ান ও সালিক

প্রকাশিত: ৬:৩৫ অপরাহ্ণ, আগস্ট ৩১, ২০২০
0Shares
সুনামগঞ্জ প্রতিনিধি :
বৈশ্বিক মহামারি করোনাভাইরাসের কারণে ব্যবসা প্রতিষ্ঠানে প্রভাব পড়েছে বেশি। এছাড়া বেশিরভাগ প্রতিষ্ঠান বন্ধ থাকায় “বৈশ্বিক ব্যবসায়িক স্থায়িত্বের উপর কোভিড-১৯ এর প্রভাব” শীর্ষক দুইদিনব্যাপী আন্তর্জাতিক ই-সম্মেলন অনুষ্ঠিত হয়েছে।
অনুষ্ঠিত সম্মেলনে এশিয়া প্যাসিফিক, মিডল ইস্ট এবং সাব সাহারা আফ্রিকা অঞ্চল থেকে ২১টি দেশের ৫১টি শিক্ষা প্রতিষ্ঠানের মধ্যে সিলেটে বিভাগ থেকে লিডিং ইউনিভার্সিটির প্রাক্তন দুই শিক্ষার্থী রেজোয়ান চৌধুরী ও সৈয়দা আলীজা সালিক অংশগ্রহণ করে তাদের গবেষণা পত্র উপস্থাপন করেন।
শনি ও রোববার জুম ভিডিও কলের মাধ্যমে বিভিন্ন দেশের মানুষের অংশগ্রহণে এ ই-সম্মেলনের আয়োজন করে গ্লোবাল একাডেমিকস রিসার্চ একাডেমি (গারা)।
গারার প্রধান উপদেষ্টা এবং বাইনারি ইউনিভার্সিটি মালয়েশিয়ার ডিন ড. আসিফ মাহবুব করিমের সভাপতিত্বে সম্মেলনে প্রধান অতিথি হিসেবে বক্তব্য রাখেন, মালদ্বীপের শিক্ষা প্রতিমন্ত্রী ড. আবদুল্লাহ রশীদ আহমেদ।
 জানা যায়, শনি ও রোববার ২১টি দেশের ৫১টি শিক্ষা প্রতিষ্ঠান কর্তৃক ৪৭টি গবেষণা পত্র উপস্থাপন করা হয় এই সম্মেলনে। এতে সিলেটের লিডিং ইউনিভার্সিটির ১৬ ব্যাচের শিক্ষার্থী রেজোয়ান চৌধুরী ও ১১ তম ব্যাচের সৈয়দা আলীজা সালিক ‘অনলাইন শিক্ষা প্লাটফরমের উপর কোভিড এর প্রভাব : একটি আইবি পাঠ্যক্রমের কেস স্টাডির উপর একটি গবেষণাপত্র উপস্থাপন করেন।
এ ব্যাপারে আন্তর্জাতিক ই-সম্মেলন অংশগ্রহণ করা সিলেটের  রেজোয়ান চৌধুরী বলেন, মহামারি করোনাভাইরাসের কারণে বর্তমানে বিশ্বের সকল শিক্ষা প্রতিষ্ঠান বন্ধ রয়েছে। বর্তমানে শিক্ষা কার্যক্রম অনলাইনের মাধ্যমে করা হচ্ছে যা আমাদের বাংলাদেশেও চলমান রয়েছে। আমরা আমাদের গভেষনার মাধ্যমে বর্তমান প্রেক্ষাপটে কিভাবে শিক্ষা ব্যবস্থা সচল রাখা যায় সে ব্যাপারে সঠিক তথ্য খুঁজে বের করার চেষ্টা করেছি।
তিনি আরও বলেন, এ সম্মেলনে ২১টি দেশের মানুষ অংশগ্রহণ করেন। প্রত্যেকেই অনেক কার্যকারী গবেষণা পত্র জমা দিয়েছেন। আমরাও আমাদের বাংলাদেশে বর্তমান করোনা পরিস্থিতিতে যে চ্যালেঞ্জ মোকাবেলা করে শিক্ষাকার্যক্রম অনলাইন করছে এবং তার উন্নতি সম্পর্কে একটি গবেষণাপত্র জমা দিয়েছি।
উল্লেখ্য, দুইদিনব্যাপী অনুষ্ঠিত আন্তর্জাতিক ই-সম্মেলন সিলেট বিভাগে অংশগ্রহণ করা রেজোয়ান চৌধুরী ও সৈয়দা আলীজা সালিক  বর্তমানে আব্দুল কাদির মোল্লা ইন্টারন্যাশনাল স্কুলে শিক্ষকতা পেশায় কর্মরত আছেন।