রাজস্বের দাবিতে ৬০দিন ধরে পল্লী ভবনের সামনে অবস্থান করছেন প্রকল্পের কর্মকর্তা কর্মচারীরা।

প্রকাশিত: ১২:৪৭ পূর্বাহ্ণ, অক্টোবর ৩০, ২০১৯
0Shares

নুসরাত হোসাইন, ঢাকা।
বাংলাদেশ পল্লী উন্নয়ন বোর্ড ( বিআরডিবি) তে প্রকল্পভুক্ত কর্মকর্তা কর্মচারী ঐক্য পরিষদ ও কর্মচারী সাংসদ সিবিএ এর উদ্যোগে ১০০% বেতন ভাতা, চাকরি স্থায়ীকরণ ও বঙ্গবন্ধু পল্লী উন্নয়ন অধিদপ্তরের দাবিতে টানা ৬০ দিনের মত লাগাতার অবস্থান কর্মসূচি চলছে। সকল কর্মকর্তা-কর্মচারী বুধবার সকাল থেকে কালো বেইজ পড়ে অবস্থান কর্মসূচি পালন করতেছে। বিআরডিবির কর্তৃপক্ষের নানা অপকর্ম আর উদাসীনতায় বিআরডিবির প্রায় আট হাজার প্রকল্পভুক্ত কর্মকর্তা-কর্মচারীদের ভাগ্য ঝুলে আছে। এদিকে চাকুরির স্থায়ী না হওয়ায় মাসের পর মাস বেতন ভাতা পাচ্ছে না কর্মকর্তা-কর্মচারীরা। তাই বেতনভাতা, চাকরি স্থায়ী করণ ও বঙ্গবন্ধু পল্লী উন্নয়ন অধিদপ্তর করার দাবীতে ১লা সেপ্টেম্বর থেকে টানা ৬০দিন লাগাতার অবস্থান কর্মসূচি চলছে কারওয়ান বাজার পল্লী ভবনের সামনে। কর্মকর্তা-কর্মচারী ঐক্য পরিষদের সিনিয়র যুগ্ন আহবায়ক মনিরুল ইসলাম বলেন, আমাদের ন্যায দাবি আদায় না হওয়া পর্যন্ত আমাদের লাগাতার অবস্থান কর্মসূচি চলবেই। আজকে আমরা বিআরডিবিকে বাকরুদ্ধ দিবস হিসেবে ঘোষণা করে কালো বেইজ পড়ে প্রতিবাদ কর্মসূচি পালন করছি এবং আগামী মঙ্গলবার হোটেল সোনারগাঁও এর সামনে এক বিশাল মানববন্ধন কর্মসূচি পালন করব। আমাদের দাবী অচিরেই মেনে না নিলে আরও কঠোর কর্মসূচী ঘোষণা করব। এজন্য কোন অপ্রতিকর ঘটনা ঘটলে তার জন্য কর্তৃপক্ষই দায়ী থাকবে। কর্মচারী সাংসদ সিবিএ এর সভাপতি আব্দু রাজ্জাক বলেন, আমাদের দাবী মেনে নিয়ে বেতন-ভাতা হীন কর্মচারীদের মুখে হাসি ফুটানোর ব্যবস্থা করুন না হয় কঠোর কর্মসূচির মাধ্যমে আমাদের দাবী আদায় করে ছাড়ব। সিবিএ এর সাধারণ সম্পাদক মফিজুল ইসলাম বলেন আমাদের যুক্তিক আন্দোলন বানচাল করার জন্য বিআরডিবির একটি কুচক্রী মহল গভীর ষড়যন্ত্রে লিপ্ত আছে। তাদের কালোহাত আমরা আন্দোলনের মাধ্যমে ভেঙে দিয়ে আমাদের দাবী বাস্তবায়ন করব। তিনি আরও হুশিয়ার দিয়ে বলেন আমাদের দাবী মেনে না নেয়া পর্যন্ত উপজেলা পর্যায়ের সকল কার্যক্রম বন্ধ থাকবে। তিনি আরও বলেন, আমাদের মৌলিক দাবী আদায়ের জন্য প্রয়োজনে প্রধানমন্ত্রী গণভবনে দিকে পদযাত্রা করব!