শ্বাসরোধ ও চোঁখ উপড়ে হত্যা কোটচাঁদপুরে পাওনা টাকা আনতে গিয়ে লাশ হলো প্রবাসী’র স্ত্রী

প্রকাশিত: ৬:৪৬ অপরাহ্ণ, সেপ্টেম্বর ৪, ২০২০
0Shares

এসএম রায়হান.কোটচাঁদপুর (ঝিনাইদহ)ঃ

ঝিনাইদহের কোটচাঁদপুর পল্লীতে এক প্রবাসী’র স্ত্রীকে নৃশংসভাবে হত্যা করেছে দুর্বৃত্তরা। এ সময় নিহতের একটি চোঁখ উঠিয়ে নিয়ে বাড়ীর পাশের একটি বাগানে লাশ ফেলে রেখে যায় দুর্বৃত্তরা । ঘটনাটি ঘটেছে বৃহস্পতিবার রাতে উপজেলা সাফদাপুর ইউনিয়নের দূর্বাকুণ্ড গ্রামের ঢাকালে পাড়ায়। খবর পেয়ে ঘটনাস্থল পরিদর্শন করেছেন কোটচাঁদপুর সার্কেলের অতিরিক্ত পুলিশ সুপার মোহাইমিনুল ইসলাম, ওসি (তদন্ত) ইন্সপেক্টর ইমরান আলম এবং সিআইডি ও পিবিআই-এর ক্রাইমসিন ইউনিট।

এলাকাবাসীরা জানান, সকাল ৮টার দিকে ওই গ্রামের একটি বাগানের মধ্যে প্রতিবেশী দোবাই প্রবাসী মোজাম্মেল হকের স্ত্রী ও দুই কন্যা সন্তানের জননী নুপুর আক্তারের (৩৫) লাশ দেখতে পান তারা। পরে পুলিশকে খবর দিলে দুপুর ২টার দিকে লাশ উদ্ধার করে থানায় নিয়ে যায় পুলিশ।

কোটচাঁদপুর থানার অফিসার ইনচার্জ (ওসি) মাহবুবুল আলম জানান, প্রাথমিক ভাবে ধারনা করা হচ্ছে প্রবাসী’র স্ত্রী নুপুরকে শ্বাসরোধে হত্যা করা হয়েছে। পরে দুর্বৃত্তরা তার বাম চোঁখ উঠিয়ে ফেলে। বিষয়টি নিয়ে পুলিশ, সিআইডি ও পিবিআই-এর ক্রাইমসিন ইউনিট আলামত সংগ্রহ করে হত্যার রহস্য ও আসামী গ্রেপ্তারের কাজ ইতি মধ্যেই শুরু করে দিয়েছে। তবে প্রাথমিক ভাবে ধর্ষণের কোন আলামত পাওয়া যায়নি।
নিহত নুপুরের কন্যা সোভা (১৯) সাংবাদিকদের বলেন, তার মা রাত ৮টার দিকে প্রতিবেশী মুসার বাড়ী পাওনা টাকা আনার জন্য টর্স লাইট হাতে বাড়ী থেকে বের হন। কিন্তুু রাতে আর ফিরে আসেনি। সকালে বাড়ী থেকে ৪’শ গজ দুরে একটি বাগানে তার মায়ের লাশ পাই তারা।
নৃশংস এই হত্যার ঘটনায় মামলার প্রস্তুতি চলছে। পুলিশ এ হত্যাকাণ্ডে’র সাথে জড়িত কাউকে গ্রেফতার করতে পারেনি।