চাচার যৌন লালসায় অন্তঃস্বত্তা ভাতিজি

প্রকাশিত: ৬:৫৮ অপরাহ্ণ, সেপ্টেম্বর ৬, ২০২০
0Shares

পটুয়াখালী প্রতিনিধি:
পটুয়াখালীর বাউফলে ৫০বছর বয়সী চাচার যৌন লালসার শিকার হয়ে ৭ মাসের অন্তঃস্বত্তা ১৩বছর বয়সী ভাতিজি এমন অভিযোগ উঠেছে ভুক্তভোগী পরিবারের। উপজেলার কেশবপুর ইউনিয়নে এ ঘটনাটি ঘটেছে। অভিযোগ সূত্রে জানা গেছে, কেশবপুর ইউনিয়নের মো. মান্নান গাজী (৫০) নামে এক ব্যক্তি একই বাড়ির চাচাতো ভাইয়ের সহজ সরল অবুঝ মেয়েকে বিভিন্ন সময় একাধিক বার ধর্ষণ করে। বিষয়টি ধর্ষিতার পরিবারের নজরে আসলে মান সম্মানের ভয়ে গোপনে পারিবারিকভাবে আপোস মিমাংসা করার চেষ্টা করে। তবে অভিযুক্ত ধর্ষক মো. মান্নান অভিযোগ অস্বীকার করলে বিপাকে পড়ে ধর্ষিতার পরিবার। এক পর্যায় লোকমূখে ছড়িয়ে পরে বিষয়টি। বাধ্য হয়েছে স্থানীয় গণ্যমান্য ব্যক্তিদের দ্বারস্থ হতে হয় তাঁদের। এদিকে, গত কয়েকদিন যাবৎ আত্মগোপনে রয়েছে মো. মান্নান গাজী। কোনভাবেই তার সাথে যোগাযোগ করা সম্ভব হয়নি। এবিষয়ে ভুক্তভোগী পরিবারের সদস্যরা জানায়,‘ আমাদের মেয়ে একটু সহজ সরল। এই সুযোগটা কাজে লাগিয়ে মান্নান আমাদের এত বড় ¶তি করে। এক প্রশ্নের জবাবে তাঁরা বলেন,‘ মান-সম্মানের ভয়ে আমরা বিষয়টি মিমাংসা করার জন্য স্থানীয় কয়েকজন গণ্যমান্য ব্যক্তিদের জানিয়েছে। তাদের সিদ্ধান্তের  অপেক্ষায় আছি। এবিষয়ে জানতে চাইলে মান্নান গাজীর স্ত্রী মোসা. মিনারা বেগম বলেন,‘ এসব ষড়যন্ত্র। সব মিথ্যা। আমার স্বামী এমন কাজ করেছে যদি তাঁর প্রমাণ করতে পারে তাহলে আমি নিজ হাতে তাকে পুলিশে তুলে দিবো। বিষয়টি বাউফল থানা অফিসার ইনচার্জ (ওসি) মোস্তাফিজুর রহমানের দৃষ্টি আর্কষণ করলে তিনি বলেন,‘এখনও কোন অভিযোগ পাইনি। অভিযোগ পেলে অব্যশই আইনাণুগ ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে।