কালকিনিতে জাকেরপার্টি নেতার অপকর্ম ঢাকতে যুবলীগ নেতা সাজিয়ে মিথ্যা মামলা দিয়ে হয়রানীর অভিযোগ

প্রকাশিত: ১২:৩৯ অপরাহ্ণ, সেপ্টেম্বর ৮, ২০২০
0Shares

মাদারীপুর জেলা প্র‌তি‌নি‌ধিঃ

অসামাজি কর্মকান্ডের অভিযোগ এনে মাদারীপুরের কালকিনিতে মোঃ রাসেল হাওলাদার নামে এক জাকেরপার্টি নেতাকে রাতের আধারে গনধোলাই দিয়েছে স্থানীয় জনতা। আর এ অপকর্ম ঢাকতে ওই জাকেরপার্টি নেতাকে যুবলীগ নেতা সাজিয়ে পৌর মেয়র এনায়েত হোসেনকে জরিয়ে থানায় একটি মিথ্যা মামলা করার অভিযোগ পাওয়া গেছে।
মেয়র এনায়েত হোসেন সাংবাদিকদের লিখিত অভিযোগ করে বলেন, পৌর এলাকার দক্ষিন জনারদন্দী গ্রামের মোঃ ফরিদ বয়াতী ও উত্তর রাজদী গ্রামের জাকেরপার্টি নেতা রাসেল হাওলাদারসহ কয়েকজন যুবক মিলে রাতের আধারে এলাকায় একটি অপকর্ম ঘটানোর জন্য চেষ্টা চালায়। এ বিষয়টি স্থানীয় লোকজন দেখতে পেয়ে তাদেরকে ধাওয়া করে গনধোলাই দেয়। এ ঘটনায় প্রতিহিংসা বসত জাকেরপার্টি নেতা রাসেল হাওলাদার বাদী হয়ে কালকিনি পৌরসভার মেয়র ও পৌর আওয়ামীলীগের সাধারন সম্পাদক এনায়েত হোসেন হাওলাদার, এমারত হাওলাদার, স্বপন হাওলাদার, কালু হাওলাদার, দেলোয়ার হাওলাদার, ও সোহাগ বয়াতীসহ ৮জনকে আসামী করে কালকিনি থানায় একটি মিথ্যা মামলা দায়ের করেন। এ দিকে মিথ্যা মামলার ঘটনায় তিব্র প্রতিবাদ জানিয়েছেন আওয়ামীলীগের নেতাকর্মীরা।
পৌর যুবলীগনেতা মাসুদ রানা জাপান বলেন, মোঃ রাসেল হাওলাদার পৌর যুবলীগের অন্যতম একজন সদস্য।
জাকেরপার্টি নেতা মোঃ রাসেল হাওলাদার বলেন, আমার উপর হামলা চালানো হয়েছে। তাই আমি মেয়র এনায়েত হোসেনসহ ৮জনের নামে থানায় মামলা করেছি।
পৌর আওয়ামীলীগের দপ্তর সম্পাদক মাহামুদুর রহমানসহ বেশ কয়েকজন বলেন, জাকেরপার্টি নেতা রাসেল হাওলাদার একজন বেপরোয়া লোক। সে তার নিজ পরিবারের উপর অনেক অত্যাচার- নির্যাতন চালাতো । সে চরিত্রগত ভালো নয়। তার দ্বারা সব কিছুই সম্ভব।
কালকিনি থানার ওসি মোঃ নাছির উদ্দিন মৃধা বলেন, যুবলীগ নেতা রাসেলের উপর হামলার খবর পেয়ে তাকেসহ দুইজনকে উদ্ধার করে হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে। এ হামলার ঘটনায় মেয়র এনায়েত হোসেনসহ ৮জনকে আসামী করে থানায় একটি মামলা হয়েছে।
এ ব্যাপারে কালকিনি পৌরসভার মেয়র ও পৌর আওয়ামীলীগের সাধারন সম্পাদক মোঃ এনায়েত হোসেন বলেন, রাসেলকে রাতের আধারে তার অপকর্মের দায়ে স্থানীয় জনতা গনধোলাই দিয়েছে। আর রাজনৈতিকভাবে আমাকে মিথ্যা মামলা দিয়ে ফাঁসানো হয়েছে। মিথ্যা মামলা দিয়ে আমাকে দাবানো যাবেনা।