নাগরপুরে বিএনপি নেতা ফিরোজ সিদ্দিকীর চেক জালিয়াতি ; ৩ মাসের দন্ড

প্রকাশিত: ১০:৩২ অপরাহ্ণ, সেপ্টেম্বর ৮, ২০২০
0Shares

নিজস্ব প্রতিবেদক, টাঙ্গাইলঃ 

টাঙ্গাইলের নাগরপুরে চেক জালিয়াতির মামলায় উপজেলা বিএনপির যুগ্ম আহ্বায়ক ও দপ্তিয়র ইউপি চেয়ারম্যান মোঃ ফিরোজ সিদ্দিকীকে ৩ মাসের কারাদন্ড দিয়েছে বিজ্ঞ আদালত।এ রায়ে ১০ হাজার টাকা জরিমানা ও অনাদায়ে আরো ১৫ দিন কারাদন্ডের আদেশ প্রদান করা হয়েছে।

গত ১৮ আগষ্ট ঢাকা চীফ মেট্রোপলিটন ম্যাজিস্ট্রেটের বিজ্ঞ আদালত দন্ডিত মোঃ ফিরোজ সিদ্দিকীর অনুপস্থিতিতে এ রায় ঘোষণা করেন।

উল্লেখ্য, উপজেলা বিএনপির যুগ্ম আহ্বায়ক ও দপ্তিয়র ইউপি চেয়ারম্যান মোঃ ফিরোজ সিদ্দিকী এস আর কর্পোরেশনের স্বত্বাধিকারী ও দপ্তিয়রের আঃ রহমান সিদ্দিকীর সন্তান।

ঘটনাসূত্রে জানা যায়, বিগত ২০১৪ সালের ৭ আগষ্ট ফিরোজ সিদ্দিকী জাহানারা আলমের কাছে থেকে নগদ ২ লক্ষ টাকা ধার হিসেবে নেয়। পরবর্তীতে পাওনা টাকা চাইতে গেলে ফিরোজ সিদ্দিকী বাদী জাহানারা আলমকে ২ লক্ষ টাকার ( এ বি ব্যাংকের চেক নং- সি.ডি ২১৩৬৪৪৫) একটি চেক প্রদান করে। প্রাপ্ত চেকটি জাহানারা আলম বিগত ২০১৪ সালের ২২ আগষ্ট উল্লেখিত ব্যাংকে টাকা উত্তোলনের জন্য জমা দিলে টাকা উত্তোলিত না হয়ে তার কাছে ফেরত আসে।
ব্যাংক চেক ফেরত আসায় জাহানারা আলম ফিরোজ সিদ্দিকীকে বিষয়টি অবহিত করেন।
পরবর্তীতে জাহানারা আলম পাওনা টাকা চাইতে গেলে আসামী ফিরোজ সিদ্দিকী আজ না কাল বিভিন্ন কথা বলে কালক্ষেপণ করতে থাকে। কোন ভাবেই পাওনা টাকা আদায় করতে না পেরে জাহানারা আলম বাদি হয়ে ঢাকা মেট্রোপলিটন ম্যাজিস্ট্রেট আদালতে ফিরোজ সিদ্দিকীর বিরুদ্ধে চেক জালিয়াতির অভিযোগ এনে মামলা করেন।

বিজ্ঞ আদালত স্বাক্ষ্য প্রমাণের ভিত্তিতে বিচারক চলতি বছরের ১৮ আগষ্ট আসামী ফিরোজ সিদ্দিকীর বিরুদ্ধে দন্ডবিধি ১৮৬০ এর প্রতারণা সংক্রান্ত ৪১৭ ধারায় উপরোক্ত রায় ঘোষণা করেন।