কোটচাঁদপুরে তুচ্ছ ঘটনায় ছেলেসহ বাবা-মাকে পিটিয়ে জখম

প্রকাশিত: ১:০১ অপরাহ্ণ, সেপ্টেম্বর ২৯, ২০২০

এসএম রায়হান.কোটচাঁদপুর (ঝিনাইদহ):
ঝিনাইদহের কোটচাঁদপুরে তুচ্ছ ঘটনাকে কেন্দ্র করে ছেলেসহ বাবা-মাকে পিটিয়ে জখম করেছে পরিবারের সদস্যরা। সোমবার বেলা ১২ টার দিকে উপজেলার কুশনা ইউনিয়নের তালশার গ্রামের উত্তর পাড়ায় এ ঘটনা ঘটে। হামলার স্বীকার হলেন, ওই এলাকার মৃত আব্দুল কারীর ছেলে রবিউল ইসলাম (৫০) ও তার স্ত্রী শেফালী খাতুন (৪৫), বড় ছেলে রুবেল হোসেন (২৩), ছোট ছেলে সোহেল (১৬), রুবেলের স্ত্রী রানী খাতুন (১৮) এবং জামাই শোয়েব আলম রনি (৩০)।
আহতদের পরিবার সূত্রে জানা যায়, রবিউল ইসলামের জামাই শোয়েব আলম রনি শুশুরের কাছ থেকে জমি লিজ নিয়ে চাষাবাদ করেন। ঘটনার দিন (সোমবার) সকালে ওই জমিতে আগাছা পরিস্কার করতে গেলে চাচা শুশুর আবুল হোসেন এবং তার দুই ছেলে আনিস ও শাহিনুর জমিতে কাজ করতে বাঁধা দেন। রনি বিষয়টি শুশুর রবিউল ইসলামকে জানান। পরে ঘটনার বিষয় নিয়ে রবিউল তার ভাই আবুল হোসেনের নিকট জানতে চান।
এসময় উভয়ের মধ্যে কথা কাটাকাটির এক পর্যায়ে অভিযুক্ত আবুল ও তার দুই ছেলে আনিস ও শাহিনুর তাদের উপর চড়াও হয়। পরে তাদের সাথে ওই এলাকার খাঁ জামানের ছেলে খলিল মিয়া, জুলু ইসলামের ছেলে তরিকুল ইসলাম, রুহুল আমিনের ছেলে রিপন হোসেন দেশীয় কুড়াল, বাঁশ ও ক্রিকেট খেলার ব্যাট নিয়ে রবিউল ও তার স্ত্রী এবং দুই ছেলে, ছেলের বৌ ও জামাইয়ের উপর হামলা চালায়। সেই সাথে বাড়ির আসবাব পত্র ভাংচুর করে। হামলায় একই পরিবারের ৬ জন আহত হন। এঘটনায় গুরতর আহত রুবেল হোসেন কোটচাঁদপুর স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে চিকিৎসাধীন রয়েছেন। এঘটনায় রবিউল ইসলাম বাদী হয়ে কোটচাঁদপুর থানায় অভিযুক্তদের বিরুদ্ধে অভিযোগ দায়ের করেছেন।
কোটচাঁদপুর থানার অফিসার ইনচার্জ মাহবুবুল আলম জানান, মারামারির ঘটনায় লিখিত অভিযোগ পেয়েছি। সঠিক তদন্ত পূর্বক ব্যবস্থা গ্রহন করা হবে।