নাগরপুরে নোয়াই নদীতে ভেঙ্গে গেছে মুক্তিযোদ্ধার ঘর- নীরব ভূমিকায় প্রশাসন

প্রকাশিত: ৬:৩৯ অপরাহ্ণ, অক্টোবর ১৯, ২০২০
33 Views

নাগরপুর (টাঙ্গাইল) প্রতিনিধি : বন্যা পরবর্তী সময়ে উপজেলার বিভিন্ন স্থানে দেখা দিয়েছে নদীর ভাঙ্গন। ভাঙ্গনের কবলে পড়রেছে কৃষকের জমি ঘরবাড়ী। টাঙ্গাইলের নাগরপুর উপজেলার সদর ইউনিয়নের দুয়াজানীতে মুক্তিযোদ্ধার বাড়ীসহ ভেঙ্গে গেছে ৩টি বসত ভিটা। গয়হাটা পাকা রাস্তার কেতার ভাঙ্গা ব্রীজটিও এখন হুমকির মুখে। সরেজমিনে গিয়ে দেখা গেছে, নাগরপুরের উপরদিয়ে প্রবাহিত নোয়াই নদীর শাখা কলিয়া হয়ে দুয়াজানি উল্লেখিত কেতার ব্রীজের নিচ দিয়ে বেকড়া দিকে প্রবাহিত হয়েছে। বন্যায় নদীর পানি কমতে শুরু করলেই শুরু হয় আকস্মিক ভাঙ্গন। এতে স্থানীয় মৃত মুক্তিযোদ্ধা মফিজের বাড়ীসহ শহিদুল ও ময়নালের বসত বাড়ী ভাঙ্গনের কবলে পরেছে ও বসত বাড়ির ভিটে পাকা ঘরসহ বহু গাছপালা নদীগর্ভে বিলিন হয়ে গেছে । নি:স্ব হয়ে পড়েছে ৩টি পরিবার । স্থানীয়রা জানালেন, ভাঙ্গন প্রতিরোধে স্থানীয় প্রশাসন কোন উদ্যোগ নেই। সাবেক মুক্তিযোদ্ধা কমান্ডার মোঃ সুজায়েত হোসেন বলেন, মৃত মুক্তিযোদ্ধার বসত বাড়ীসহ তিনটি বাড়ী ভেঙ্গে যাওয়ায় অসহায় হয়ে পরেছে তারা। ভাঙ্গনের শুরুতেই ব্যবস্থা গ্রহণ করলে হয়ত রক্ষা করা সম্ভব হতো। কিন্তু দুদিন অতিবাহিত হলেও কোন ব্যবস্থা গ্রহণ করেনি প্রশাসন।