নকলায় সোমবার ছিলো কালেক্টরেট সহকারীদের ২য় দিনের কর্ম বিরতি

প্রকাশিত: ৭:০২ অপরাহ্ণ, নভেম্বর ১৮, ২০২০

মো. মোশারফ হোসাইন, শেরপুর প্রতিনিধি:

শেরপুর জেলার নকলা উপজেলায় বাংলাদেশ কালেক্টরেট সহকারীদের পদবী পরিবর্তন ও উন্নয়নের দাবীতে দ্বিতীয় দিনেও পূর্ণ দিবস কর্ম বিরতি কর্মসূচী পালন করা হয়েছে। বাংলাদেশ কালেক্টরেট সহকারী সমিতি (বাকাসস) কেন্দ্রীয় কমিটি কতৃক ঘোষিত কর্মসূচীর অংশ হিসেবে ১৬ নভেম্বর সোমবার উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তার কার্যালয়ের সামনে ও উপজেলা ভূমি অফিসরে সামনে সকাল ৯ টা থেকে বিকেল ৫ টা পর্যন্ত দ্বিতীয় দিনের মতো এ কর্মসুচী পালন করা হয়।

সোমবার দুপুরের দিকে উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তার কার্যালয়ের সামনে ও উপজেলা ভূমি অফিসরে সামনে গিয়ে দেখা গেছে, বাকাসস-এর জেলা কমিটির সাংগঠনিক সম্পাদক অফিস সহকারী মোহাম্মদ আশ্রাফুল আলম ও উপজেলা কমিটির সমন্বয়ক মনিরুজ্জামান মিলন, সার্টিফিকেট সহকারী সায়েদা বেগম এবং উপজেলা ভূমি অফিসরে সামনে নাজির-কাম-ক্যাশিয়ার কাকলি চক্রবর্তী, ক্রেডিট চেকিং-কাম-সায়রাত সহকারী শেখ ফরিদ ও সার্টিফিকেট পেশকার রাশেদুল কিবরিয়া রাশেদ কর্মবিরতির ব্যানার ঝুলিয়ে চেয়ারে বসে আছেন।

সার্টিফিকেট পেশকার রাশেদুল কিবরিয়া রাশেদ বলেন, আমাদের দেশ উন্নয়নের মহাসড়কে চলছে। দেশের সব কিছু ডিজিটালাইজড হয়েছে। কিন্তু এখন পর্যন্ত আমরা আগের পদ-পদবীতেই আছি। তাই বাংলাদেশ কালেক্টরেট সহকারীদের পদ-পদবীর নাম পরিবর্তন ও বেতন গ্রেডের উন্নীতকরনের দাবীতে দ্বিতীয় দিনের মতো পূর্ণ দিবস কর্মবিরতি কর্মসূচী পালন করছি।

ক্রেডিট চেকিং-কাম-সায়রাত সহকারী শেখ ফরিদ জানান, বৃটিশ আমলের পদবী নিয়ে আমাদের এখনও চাকুরি করতে হচ্ছে। বিভিন্ন সরকারি অফিসের কর্মচারীদের পদ-পদবীর নাম পরিবর্তন হলেও আমাদের ১০ থেকে ১১টি পদ এখনও বৃটিশ আমলের কেরানী’র নাম নিয়ে কাজ-কর্ম করতে হচ্ছে, যা বর্তমান বাংলাদেশের প্রেক্ষাপটে এটি একটি লজ্জা জনক বিষয়।

বাকাসস-এর জেলা কমিটির সাংগঠনিক সম্পাদক অফিস সহকারী মোহাম্মদ আশ্রাফুল আলম বলেন, দ্রুত সময়ের মধ্যে আমাদের দাবী সমুহ মেনে না নিলে চলতি মাসের তথা ২২ নভেম্বর থেকে ২৬ নভেম্বর পর্যন্ত সকাল ৯ টার সময় হাজিরা খাতায় স্বাক্ষর করে বিকেল ৫ টা পর্যন্ত কর্মবিরতি পালন করা হবে। এর পরেও দাবী মানলে ২৯ ও ৩০ নভেম্বর সকাল ৯ টার সময় হাজিরা খাতায় স্বাক্ষর করে বিকেল ৫ টা পর্যন্ত কর্মবিরতি পালন করা হবে। এরপর ৫ ডিসেম্বর শনিবার ঢাকা প্রেসক্লাবের সামনে সকাল সাড়ে ১০টার সময় স্ব স্ব জেলার ব্যানারসহ মানববন্ধন, সমাবেশ ও পরবর্তী কর্মসূচী ঘোষনা করা হবে বলে জানান বাকাসস-এর নকলা উপজেলা কমিটির সমন্বয়ক মনিরুজ্জামান মিলন।

উপজেলা ভূমি অফিসরে নাজির-কাম-ক্যাশিয়ার কাকলি চক্রবর্তী বলেন, ন্যায্য দাবী আদায়ের লক্ষে আমাদের টানা কর্মবিরতির জন্য সাধারণ জনগনের কিছুটা সমস্যা হচ্ছে। তবে সরকার আমাদের দাবী মেনে নেওয়ার পরে প্রয়োজনে অতিরিক্ত সময়ে কাজ করে হলেও জনগনের সমস্যা সমাধানে তারা বদ্ধ পরিকর বলে জানান দাবী আদায়ের লক্ষে কর্মবিরতিতে থাকা অনেকে।