বাউফলে নির্যাতন করে গৃহবধূকে হত্যার অভিযোগ

প্রকাশিত: ৭:২৪ অপরাহ্ণ, নভেম্বর ১৮, ২০২০

পটুয়াখালী প্রতিনিধি:
পটুয়াখালীর বাউফলে রোজিনা বেগম (২৭) নামের এক গৃহবধূকে নির্যাতন করে হত্যার অভিযোগ পাওয়া গেছে। সোমবার সকালে ওই গৃহবধূর লাশ পোস্টমর্টেমের জন্য পটুয়াখালী মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে পাঠানো হয়েছে। নিহত ওই গৃহবধূর ভাই নিরব অভিযোগ করেন, প্রায় ৪ বছর আগে কেশবপুর গ্রামের মিন্টু ব্যাপারীর ছেলে হাসান ব্যাপাীর (৩০) সাথে তার বোন রোজিনা বেগমের বিয়ে হয়। তাদের সংসারে নুশরা াত নামের দুই বছরের এক কন্যা সন্তান রয়েছে। তার ভগ্নিপতি নিরব বিয়ের পর থেকে নানা অজুহাতে তাদের কাছে টাকা চাইত। বোনের শান্তির জন্য বিভিন্ন সময় তারা ধারদেনা করে ভগ্নিপতিকে টাকা দিত। ঘটনার দিন রবিবার বিকালে স্বামী -স্ত্রীর মধ্যে ঝগড়াঝাটি হয়। ওই দিন সন্ধ্যায় তাদেরকে খবর দেয়া হয় তার বোন রোজিনা অসুস্থ হয়ে পরেছেন। এরপর ভগ্নিপতির বাড়ি থেকে তার বোনকে অচেতন অবস্থায় বাউফল হাসপাতালে নিয়ে আসলে জরুরী বিভাগের চিকিৎসক তাকে মৃত ঘোষনা করেন। নিরবের দাবি ভগ্নিপতি হাসান নির্যাতন করে তার বোনকে হত্যা করেছে। এ ঘটনার পর থেকে নিহত গৃহবধূ রোজিনা বেগমের স্বামী ও শ্বশুর বাড়ির লোকজন গা ঢাকা দিয়েছেন। খবর পেয়ে বাউফল থানার পুলিশ লাশ উদ্ধার করে পোস্টমর্টের জন্য পটুয়াখালী মর্গে প্রেরণ করেছেন।
বাউফল থানার ওসি মোস্তাফিজুর রহমান বলেন,‘ এ ঘটনায় একটি অপমৃত্যুর মামলা দায়ের করা হয়েছে। পোস্টমর্টেমের রিপোর্ট পাওয়ার পরে পরবর্তী আইনানুগ ব্যবস্থা নেয়া হবে।